Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

North 24 Parganas: দুই থানার উদাসীনতায় এলাকায় বাড়ছে দুষ্কৃতী দৌরাত্ম, অভিযোগ সোদপুরবাসীর

।। প্রথম কলকাতা।।

এলাকায় ক্রমশ বাড়ছে চোর ছিনতাইবাজদের আনাগোনা। কিন্তু পুলিশের সেদিকে বিশেষ কোন নজরদারি নেই। ঘটনাটি পানিহাটি পৌরসভার ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের সোদপুর এইচবি টাউন এলাকার। এই এলাকাটি মূলত খড়দহ থানা এবং ঘোলা থানার মধ্যবর্তী সীমানায় অবস্থিত। যার কারণে দুই থানারই উদাসীনতা দেখা যাচ্ছে এই এলাকাকে নিয়ে। যার ফলে পুলিশের নজরের বাইরে থাকছে এই এলাকা।সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই দুষ্কৃতীরা নিজেদের কাজ করে চলেছে। সম্প্রতি ওই এলাকায় বাইক চুরি করতে এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাইকের তালা ভাঙার ছবি ধরা পড়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায় । যা দেখার পর রীতিমত আতঙ্কিত সেখানকার বাসিন্দারা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এই এলাকাটি দুটো থানার মধ্যবর্তী যার কারণে একে অপরের উপর দায়িত্ব চাপিয়ে দিচ্ছে থানাগুলি। নিজেদের দায়িত্ব সঠিক মত পালন না করায় সুযোগ পাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। তাই তারা এই ধরনের চুরি চিন্তাইয়ের ঘটনা ঘটাচ্ছে । এমনকি এই এলাকায় সন্ধ্যের পরে রাস্তায় বেরোনো মুশকিল হয়ে গিয়েছে মহিলাদের জন্য । অসামাজিক কাজকর্ম চলছে এই এলাকায়। জানা যায় একসময় সোদপুর এইচবি টাউন এলাকায় বেশ হাই প্রোফাইল মানুষের বসবাস ছিল । এখানে আবাসন, স্কুল, ব্যাঙ্ক ,পোস্ট অফিস সবরকম সুবিধাই রয়েছে। তবে বর্তমানে পুলিশি নজরদারি নেই এই এলাকায় । পাশাপাশি পৌরসভার নাগরিক সুবিধা থেকেও বঞ্চিত এই এলাকার মানুষজন। যার কারণে অনেকেই নিজেদের বসবাস গুটিয়ে নিয়েছেন এখান থেকে।

এলাকাবাসীর সংখ্যা কমতে শুরু করেছে । যার কারণে দুষ্কৃতিদের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে এই এলাকায়। যদিও এই বিষয়ে পানিহাটি পৌরসভার ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধি রেখা রায় জানান, তিনি এই ধরনের কোন অভিযোগ ওয়ার্ডবাসীর কাছ থেকে পাননি। তাঁর মতে, এই এলাকা যথেষ্ট শান্তিপূর্ণ । এই ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি এখানে । তবে যদি নিরাপত্তাহীনতার অভিযোগ আসে তাহলে অবশ্যই দেখা হবে। জন প্রতিনিধির এই মন্তব্যের পাল্টা প্রতিক্রিয়া দেন বিজেপি নেতা জয় সাহা। তিনি বলেন, ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধি এলাকায় চুরি ছিনতাই এর কোন খবর তিনি পাচ্ছেন না অথচ এলাকায় কোথাও প্রোমোটিং হলে সেই খবর অবশ্যই তাঁর কাছে পৌঁছে যাচ্ছে ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories