Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আগামীকাল থেকে প্লাস্টিক ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি রাজ্যের,অমান্য করলেই জরিমানা

।। প্রথম কলকাতা।।

পরিবেশ দূষণকে নিয়ন্ত্রণে আনতে একের পর এক কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। আর এবার রাজ্যে প্লাস্টিক ব্যবহারে রাশ টানতে জরিমানার নির্দেশ রাজ্যের। আগামীকাল অর্থাৎ ১ লা জুলাই থেকে ৭৫ মাইক্রোনের নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাজ্য। আর এই নিষেধাজ্ঞ অমান্য করলে তাদেরকে জরিমানা করা হবে বলে জানানো হয়েছে। রাজ্য সরকারের এই পদক্ষেপকে ব্যবসায়ীদের একাংশ সমর্থন জানালেও একাংশের দাবী বাধ্য হয়েই তাদেরকে একপ্রকার প্লাস্টিক ব্যবহার করতে হচ্ছে। এছাড়াও বেশ কয়েকবার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল কিন্তু আবার প্লাস্টিক চালু করা হয়।

কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, চলতি বছরের পয়লা জুলাই থেকে নয়া নিয়ম চালু করা হবে। ৭৫ মাইক্রোনের নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার করা যাবে না । রাজ্যে মোট ১ হাজার ২৬ টি প্লাস্টিক উৎপাদনকারী সংস্থা রয়েছে। তাদেরকেও এই বার্তা দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি । পাশাপাশি নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে প্লাস্টিকের প্যাকেট কিংবা ক্যারি ব্যাগগুলিকে পুরু হতে হবে। কত মাইক্রন পুরু হতে হবে এবং তার মাপ কত হবে তা নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের তরফ থেকে।

এর আগেও ৫০ মাইক্রনের নিচে প্লাস্টিকের কাপ, প্যাকেট ব্যবহার করায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও সেই নির্দেশকে অগ্রাহ্য করে ইচ্ছেমতো ৫০ মাইক্রোনের নিচে প্লাস্টিকের বিভিন্ন জিনিস ব্যবহার করে চলেছেন ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ। আর তাই এবার রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব নিয়ে দেখা হয়েছে । প্লাস্টিক ব্যবহারে জনসাধারণকে আরও বেশি সচেতন করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। যার কারণে ফের একবার নির্দেশিকা জারি করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে ৭৫ মাইক্রনের নিচে প্লাস্টিকের প্যাকেট কিংবা ক্যারি ব্যাগ ব্যবহার করা যাবে না।

প্লাস্টিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের কথায়, একপ্রকার বাধ্য হয়েই তাদেরকে প্লাস্টিকের ব্যবহার করতে হয় কারণ যে সকল মানুষ কাঁচা সবজি কিংবা অন্যান্য কোন জিনিস কিনতে আসছেন তাঁরা ব্যাগ না নিয়ে আসলে তাদেরকে দিতে হচ্ছে প্লাস্টিকের ক্যারি ব্যাগ। অন্যদিকে ৭৫ মাইক্রোনের নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার করার নিষেধাজ্ঞা জারি করার প্রসঙ্গে সাধারণ মানুষের দাবি, পরিবেশকে সুস্থ রাখার জন্য যদি এটি করা প্রয়োজন হয় তাহলে অবশ্যই করা উচিত।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories