Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

রথের রশি টেনে উৎসবের সূচনা করবেন মুখ্যমন্ত্রী, কিন্তু কোথায়?

1 min read

।।প্র‍থম কলকাতা।।

আগামী শুক্রবার, ১ জুলাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতায় ইসকনের রথযাত্রার আনুষ্ঠানিক সূচনা করবেন। এবছর কলকাতায় ইসকনের ৫১-তম রথযাত্রা উদযাপন হতে চলেছে। কোভিডের কারণে গত তিন’বছর কলকাতায় রথযাত্রা উপলক্ষে অনুষ্ঠানে কাটছাঁট করা হয়েছিল। তাই এবছর সাড়ম্বরে রথযাত্রা উৎসবের আয়োজন করেছে ইসকন কর্তৃপক্ষ।

দু’বছর পর ফের এবার মহাসমারোহে পালিত হবে ইসকনের রথযাত্রা। আগামীকাল শুক্রবার ইসকন মন্দিরের সামনে থেকে রথের দড়ি টেনে উৎসবের সূচনা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনটি আলাদা রথে চড়ে যাবেন জগন্নাথ, বলরাম এবং সুভদ্রা। ইসকন মন্দিরে এখন তাই সাজ—সাজ রব।শুক্রবার দুপুরের পর অ্যালবার্ট রোডে ইসকনের মন্দির থেকে এই রথযাত্রা শুরু হবে। এরপর এ জে সি বসু রোড, শরৎ বসু রোড, হাজরা রোড, চৌরঙ্গি রোড, জওহরলাল নেহরু রোড হয়ে ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে শেষ হবে রথযাত্রা।

৭ দিন ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে অস্থায়ীভাবে জগন্নাথদেব, বলরাম ও সুভদ্রার মাসির বাড়ি গুন্ডিচা মন্দির তৈরি করা হবে।শুক্রবার বেলা দুটোয় মিন্টো পার্কের অ্যালবার্ট রোডের মন্দির থেকে রথযাত্রার শুভসূচনা করবেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে হাতে আরতি করবেন। রথের রশি টেনে আট দিনব্যাপী সূচনা করবেন রথযাত্রা উৎসবের। ইসকনের উপ-অধিকর্তা অনঙ্গমোহন দাস বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইসকনের রথযাত্রা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আসবেন। তাঁর হাতে আরতি হওয়ার পরই রথের আনুষ্ঠানিক সূচনা হবে।

গত বছর কলকাতা ইসকনের রথযাত্রার সুবর্ণ জয়ন্তী বর্ষ ছিল। করোনার কারণে কোনও অনুষ্ঠান করা যায়নি। এ বার সেই উৎসব হবে। আমেরিকা, রাশিয়া, লন্ডন, সিঙ্গাপুর-সহ দেড়শটি দেশ থেকে ইসকনের ভক্তেরা আসবেন। ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম রথযাত্রা উৎসবে সামিল হতে। কলকাতা ইসকন রথযাত্রা শুরু হয় ১৯৭২ সালে। ২০২১ সাল ছিল সুবর্ণজয়ন্তী। সেই উৎসব ২০২২ সালে ধুমধামের সঙ্গে পালিত হবে। ১ জুলাই থেকে ৮ জুলাই পর্যন্ত মাসির বাড়ি তৈরি হবে ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে। ১জুলাই থেকে টানা আটদিন ধুমধাম করে হবে জগন্নাথ বলরাম ও সুভদ্রার পুজোর আয়োজন। ইতিমধ্যেই নানান দেশ থেকে ইসকন মন্দিরে এসে পৌঁছেছেন প্রায় ৩০০ উপরে ভক্তগণ।

এ তো গেল কলকাতার ইসকন মন্দিরের প্রস্তুতি পর্বের কথা। সাজ-সাজ রব মায়াপুরের ইস্কনেও। দু’বছর পর মহা ধুমধাম করে পালিত হবে রথযাত্রা। করোনাবিধি মেনেই এবার উৎসবে মাতবে মায়াপুরবাসী। দেশ-বিদেশ থেকে ইতিমধ্যে জড়ো হচ্ছেন ভক্তরা। মায়াপুর থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে রাজাপুর গ্রাম রয়েছে, সেখানকার জগন্নাথ মন্দির থেকে তিনটি পৃথক রথে করে জগন্নাথ, বলদেব এবং সুভদ্রা মহারানি মায়াপুর চন্দ্রোদয় মন্দিরের অস্থায়ী গুণ্ডিচায় মাসির বাড়িতে আসবেন।

উলটো রথ পর্যন্ত মাসির বাড়িতে একাধিক মেনুতে খাওয়া-দাওয়া সারবেন জগন্নাথ, বলদেব, সুভদ্রা। আর সেই প্রসাদ ইসকনে আগত সমস্ত ভক্তদের উদ্দেশ্যে বিতরণ করা হবে বলে ইসকন সূত্রে খবর। জনসমাগমের কথা মাথায় রেখে মায়াপুরে আসার ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানোর আরজি জানিয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories