Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ব্যাপক হারে কর্মী ছাঁটাই বাইজুসের ! চাকরি গেল প্রায় ২৫০০ জনের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

গত দু’বছর করোনার প্রকোপ সারা বিশ্বজুড়ে কর্মক্ষেত্রে বেশ রদবদল ঘটিয়েছে । অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্ম গুলি লাভের মুখ দেখেছিল । কিন্তু করোনার প্রকোপ কাটতেই স্কুল-কলেজ আবার খুলে যাওয়ার পরে সেই সব ক্ষেত্রে বিরূপ প্রভাব পড়তে দেখা যায়। বর্তমানে কাজের ধরণ কিংবা পদ্ধতি বদলে গিয়েছে , যার কারণে গড়ে উঠেছে একাধিক স্টার্টআপ সংস্থা। তবে ভালোর পাশাপাশি কিছু মন্দের দিক রয়েছে, ইতিমধ্যে কর্মী ছাঁটাই শুরু করে দিয়েছে বাইজুস। কারণ হিসেবে জানানো হয়, আর্থিক ব্যয় সামাল দিতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। বাইজুস হোয়াইটহ্যাট জুনিয়র সংস্থা থেকে প্রায় ৩০০ জন কর্মীকে ছাঁটাই করেছে। একসময় হোয়াইট হ্যাট জুনিয়রকে প্রায় ৩০ কোটি ডলারে কিনে নিয়েছিল বাইজুস , যেখানে বাচ্চাদের অনলাইন কোডিং শেখানো হয়। তবে এপ্রিল মাস থেকে কর্মীদের অফিস যেতে বললে মুম্বাই , বেঙ্গালুরু , গুরুগ্রাম প্রভৃতি জায়গায় কর্মরত হোয়াইটহ্যাট জুনিয়ারের কর্মীরা গণইস্তফা দিতে শুরু করেন।

যেহেতু সংস্থার আয় কমছে তাই বাইজুস তার বিক্রয়, বিপণন, বিষয়বস্তু এবং ডিজাইন টিম ছাড়াও তার গ্রুপ কোম্পানি – টপ্পার, হোয়াইটহ্যাট জুনিয়র থেকে পূর্ণ-সময়ের এবং চুক্তিবদ্ধ কর্মীদের বরখাস্ত করেছে। বাইজুস ২৭ এবং ২৮ জুন টপ্পার এবং হোয়াইটহ্যাট জুনিয়রের ১,৫০০ কর্মী ছাঁটাই করেছে। পাশাপশি ২৯ জুন, এর কোর অপারেশন টিম থেকে প্রায় ১০০০ জন কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করার জন্য একটি মেল পাঠানো হয়েছিল।

Byju’s গত দুই বছরে Toppr এবং WhiteHat Jr অধিগ্রহণ করেছিল। কিন্তু ২৭ মাসের মধ্যে বাজারের সবচেয়ে বড় পতন, জুনে সেনসেক্স, নিফটি ৫% স্লিপ, এফআইআইগুলি বিক্রি করছে৷ বেশিরভাগ কর্মচারীকে বিষয়বস্তু এবং ডিজাইন টিম থেকে ছাঁটাই করা হয়েছে। তাদের সমস্ত গ্রুপ কোম্পানিতে কন্টেন্ট, সলিউশন রাইটিং এবং ডিজাইন টিমের সদস্য সংখ্যা অনেকাংশে কমিয়ে এনেছে আবার কোন কোন টিমের সদস্য সংখ্যা শূণ্যে পর্যন্ত নামিয়ে আনা হয়েছে। এর আগেও বাইজুস অন্যান্য গ্রুপ কোম্পানি থেকে কর্মীদের ছাঁটাই করেছে।

কিন্তু এবার তারা তাদের মূল অপারেশন টিম থেকে কর্মীদের ছাঁটাই করেছে। Byju’s শুধুমাত্র Toppr থেকে ১২,০০ কর্মী বরখাস্ত করেছে। সূত্র অনুযায়ী, তাদের মধ্যে ৩০০ থেকে ৩৫০ জন ছিলেন স্থায়ী কর্মচারী। এছাড়াও প্রায় ৩০০ কর্মচারীকে তাদের পদত্যাগ করতে বলা হয় এবং জানানো হয় তারা দেড় মাস বেতন পাবেন না। এ ছাড়া ৬০০ চুক্তি কর্মীকেও চাকরিচ্যুত করা হয়েছে, যাদের চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল চলতি বছরের অক্টোবর বা নভেম্বরে। কোম্পানিটি ছাঁটাইয়ের পিছনে কারণ হিসাবে খরচ কমানো এবং পদের প্রয়োজন নেই বলে উল্লেখ করেছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories