Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Fake Call Centre:টেক সাপোর্টের নামে আড়াই বছর ধরে চলা প্রতারণা চক্রের পর্দাফাঁস, গ্রেফতার ১০

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

শহরের বুকে বর্তমানে দাপিয়ে চলছে প্রতারণা চক্র। টেকনিক্যাল সাপোর্ট দেওয়ার নাম করে ভুয়ো কল সেন্টার খুলে বহু বিদেশিকে কোটি কোটি টাকা প্রতারণা করার অভিযোগ উঠেছে । এই ঘটনায় সিআইডি আধিকারিকরা সল্টলেক থেকে গ্রেফতার করে দশজনকে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং ওই কলসেন্টারের তল্লাশি চালিয়ে ইউরো, ডলার, জার্মান কারেন্সিতেও লেনদেনের হদিশ পাওয়া গিয়েছে । অর্থাৎ বড় মাপের প্রতারণার কাজ চালাচ্ছিল এই বেআইনি কল সেন্টারটি। অভিযোগ পাওয়ার পরে তদন্তে নেমেছিল সিআইডি। অবশেষে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হল ১০ জনকে।

সিআইডি সূত্রে খবর , এই বেআইনি কল সেন্টারটি থেকে নামি কোম্পানির নাম করে ফোন করা হত বিদেশীদেরকে। তারপর তাদেরকে প্রযুক্তিগত সাহায্য দেওয়ার নাম করে প্রতারণার ফাঁদে ফেলা হতো । তাদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হতো কোটি কোটি টাকা । দীর্ঘ আড়াই বছর ধরে এই ভুয়া কল সেন্টারটি তাদের প্রতারণার ব্যবসা রমরমিয়ে চালিয়ে যাচ্ছিল। তদন্তকারী আধিকারিকদের কাছে গোপন সূত্রে খবর পৌঁছেছিল আর তারপর থেকেই এই ঘটনার তদন্তে নেমেছিল সিআইডি । অবশেষে সল্টলেকের ওই ভুয়ো কল সেন্টারে গিয়ে হানা দেয় তাঁরা।

সেখান থেকে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার করা হয় রেকর্ড। যেখানে যে সমস্ত বিদেশী কারেন্সিতে লেনদেন হয়েছে তার সম্পূর্ণ তথ্য উঠে এসেছে । এছাড়াও উদ্ধার করা হয়েছে HDD ড্রাইভ, ল্যাপটপ। যে সকল বিদেশীদেরকে ফোন করে তাঁরা প্রতারিত করতো তাদের নাম্বার সহ ঠিকানা পর্যন্ত পাওয়া গিয়েছে ওই কল সেন্টারের অফিস থেকে। ধৃতদেরকে আজ আদালতে পেশ করা হবে বলে খবর পুলিশ সূত্রে। প্রসঙ্গত, কিছুদিন পূর্বেই বেনিয়াপুকুর থানার অন্তর্গত একটি এলাকায় ভুয়ো কল সেন্টারের হদিশ পায় পুলিশ । সেখানে হানা দিয়ে গ্রেফতার করা হয় ছয় জনকে । উদ্ধার করা হয় ৭টি ল্যাপটপ এবং ১৫ টি মোবাইল ফোন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছিল যে , এই কলসেন্টার থেকেও বিদেশী নাগরিকদেরকে প্রতারণা করা হতো। বর্তমানে সিল করে দেওয়া হয়েছে ওই ভুয়ো কল সেন্টারের অফিসটি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories