Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ক্ষমতার অপব্যবহার করে একাধিক মহিলাকে যৌন হেনস্থা! শাস্তি পেলেন জনপ্রিয় শিল্পী

1 min read

।।  প্রথম কলকাতা ।।

অবশেষে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত গায়ক আর কেলির বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের হল নিস্পত্তি। গতকাল শাস্তি পেলেন শিল্পী। সুপারস্টার মর্যাদাকে কাজে লাগিয়ে দুই দশক ধরে নারী ও শিশুদের যৌন নিপীড়নের চক্র চালিয়ে আসছিলেন জনপ্রিয় মার্কিন গায়ক আর কেলি। এ ঘটনায় তাকে অভিযুক্ত করেছে আদালত। প্রসঙ্গত, বিবিসি এক প্রতিবেদন অনুযায়ী জানা যায়, ছয় সপ্তাহ ধরে চলা বিচার প্রক্রিয়ায় তার বিরুদ্ধে নয়জন মহিলা ও দুই পুরুষ যৌন নিগ্রহণ ও সহিংসতার বর্ণনা দেন। অবশেষে দুই দিনের তর্ক-বিতর্কের পর কেলির বিরুদ্ধে সব অভিযোগের সত্যতা পেয়েছেন বিচারক।

আর সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই আমেরিকার বিখ্যাত গায়িকা আর কেলিকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। গত ২০ বছর ধরে তার বিরুদ্ধে মামলা চলছিল। এদিন আদালতে তার বিরুদ্ধে ৪৫ জন সাক্ষী উপস্থিত ছিলেন। ৫৫ বছর বয়সী এই ব্যক্তিকে নয়টি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। ব্রুকলিন ফেডারেল আদালতে বিচারপতি অ্যান ডনেলি তাকে সাজা দেন।

এরপর নিউইয়র্কের ইস্টার্ন ডিস্ট্রিক্টের জন্য মার্কিন অ্যাটর্নি অফিসের একটি ট্যুইটে বলা হয়েছে যে আর কেলিকে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। প্রসিকিউটররা গায়কের জন্য কমপক্ষে ২৫ বছরের কারাদণ্ড চেয়েছিলেন, কারণ তারা বিশ্বাস করেছিলেন যে তিনি জনসাধারণের জন্য একটি গুরুতর হুমকি ছিলেন।

একই সাথে প্রসিকিউটরদের মতে, তার কর্ম ছিল নির্লজ্জ, কারসাজি, নিয়ন্ত্রণকারী এবং জবরদস্তিমূলক। তিনি আইনের প্রতি কোন অনুশোচনা বা শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেননি। পাশাপাশি কেলি শিকাগোতেও আরেকটি বিচারের মুখোমুখি হয়েছেন, যার বিচার কার্য শুরু হবে ১৫ আগস্ট থেকে।

প্রসঙ্গত, জানা যায়, রবার্ট সিলভাস্টার কেলিকে নারী ও শিশুদের ওপর সহিংস ও জবরদস্তিমূলক চক্রের হোতা বলে চিহ্নিত করেছে আদালত। ‘আই বিলিভ আই ক্যান ফ্লাই’ গানের জন্য পুরস্কার-জয়ী কেলি যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে নারীদের পাচার করতেন ও শিশুদের পর্নগ্রাফিতে ব্যবহার করতে। এমন প্রমাণও মিলেছে বলে জানান বিচারক। এই ক্ষেত্রে, কেলি এবং তার দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের পর্নোগ্রাফি পরীক্ষায় কারচুপি এবং মিথ্যা কথা দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছিল। বিচার চলাকালীন, কেলির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য মোট ৪৫ জন সাক্ষী আদালতে উপস্থিতও ছিলেন। এই সময়, কেলিও র‌্যাকেটিয়ারিংয়ের জন্য দোষী সাব্যস্ত হয়েছিল।

উল্লেখ্য, আর কেলির বিচারের সবচেয়ে বড় দিকটি ছিল প্রয়াত গায়িকা আলিয়ার সাথে তার বিতর্কিত সম্পর্ক, যাকে তিনি মাত্র ১৫ বছর বয়সে অবৈধভাবে বিয়ে করেছিলেন। তার প্রাক্তন ম্যানেজার আলিয়াকে বিয়ে করার জন্য তিনি তার পরিচয় জাল করা এবং কর্মকর্তাদের ঘুষ দেওয়ার কথা স্বীকারও করেছিলেন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories