Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ধনখড় তার পদকে কর্দমাক্ত করা শিখিয়েছেন, জাগো বাংলায় রাজ্যপালকে তোপ রাজ্যের

।।প্রথম কলকাতা।।

অব্যাহত রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত। এবার তৃণমূলের দলীয় মুখপত্র জাগো বাংলার মাধ্যমে কটাক্ষ করা হল রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে। শুক্রবার তৃণমূলের মুখপত্র জাগো বাংলায় সরাসরি আক্রমণ করা হয় রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে। প্রাক্তন রাজ্যপালদের সঙ্গে সরাসরি তুলনা করে আক্রমণ শানানো হয় তার উদ্দেশ্যে। এই আক্রমণ দুই পক্ষের দ্বন্দ্বকে আরও বাড়িয়ে তুলবে তা বলাই বাহুল্য।এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য যে রাজ্যের পক্ষ থেকে রাজ্যপালকে আক্রমণ এটাই প্রথমবারের জন্য নয়। এর আগে বিভিন্ন সময়ে রাজ্যের শাসক দলের আক্রমণের মুখে পড়েছেন রাজ্যপাল। একাধিক বিষয়ে রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত প্রকট হয়েছে।

সুদীপ্ত সেনের মুখে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ শোনার পরেই রাজ্যের শাসকদলের আট সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল দেখা করেন রাজ্যপালের সঙ্গে। তারা সারদা কান্ডে শুভেন্দু অধিকারির গ্রেফতারির দাবি জানায়। যদিও এরপরেই ট্যুইট করে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধেই আইন শৃঙ্খলা নিয়ে তোপ দাগেন রাজ্যপাল। এরপরেই জাগোবাংলায় রাজ্যপালের বিরুদ্ধে এই আক্রমণ সংকট আরও ঘনীভূত করবে বলেই মনে করা হচ্ছে। 

ঠিক কী বলা হয়েছে জাগো বাংলায়? জাগোবাংলায় রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে আক্রমণ করে বলা হয়েছে তার আগে যারা বাংলার রাজ্যপাল হয়েছেন তাদের সকলকেই দেশের মানুষ এক ডাকে চেনেন। এছাড়াও রাজ্যপাল ধনখড়কে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালদের তালিকায় বেমানান বলেও লেখা হয়েছে এখানে। এই সম্পাদকীয়তে আরও বলা হয়েছে রাজ্যপালের পদ আলঙ্কারিক এবং এই পদে বেশিরভাগ মানুষ রাজনীতির হাত ধরেই এসেছেন। এই কারনেইএই পদকে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবহারের অভিযোগও করা হয়েছে এই সম্পাদকীয়তে। 

আবার অন্যদিকে মমতার বিরুদ্ধেও আক্রমণ শানিয়েছেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে ২১ জুলাই বিজেপির বিরুদ্ধে জেহাদ দিবস আর এই শব্দেই আপত্তি রাজ্যপালের। মুখ্যমন্ত্রীকে একটি চিঠিও পাঠান তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে দুর্ভাগ্যজনক এবং সাংবিধানিক অরাজকতার নির্দেশক বলে উল্লেখ করেন রাজ্যপাল। এ ধরনের মন্তব্য অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবিও জানান তিনি।

এই চিঠি নিয়ে আরও একবার রাজ্য সরকারের সঙ্গে রাজ্যপালের দ্বন্দ্ব চরমে পৌঁছেছে। কড়া ভাষায় রাজ্যপালকে পালটা জবাব দেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, “অনেক শব্দ রয়েছে যেগুলো কথ্য ভাষায় ব্যবহার করে থাকি আমরা। তা কখনও ধর্ম দেখে ব্যবহার হয় না। মঙ্গলবার আমরা রাজভবনে গিয়েছিলাম। তাই চাপে পড়ে নতুন নাটক মঞ্চস্থ করা হয়েছে। এর প্রযোজক রাজ্যপাল আর পরিচালনায় বিজেপি।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories