Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘কংগ্রেস বিজেপি আঁতাতকে প্রকাশ্যে এনে দিয়েছে মেঘালয়’, শিলং থেকে বিস্ফোরক অভিষেক

।।প্রথম কলকাতা।।

মেঘালয়ে নতুন কার্যালয়ের উদ্বোধন করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার শিলংয়ে এই নতুন অফিসের উদ্বোধন করেন তিনি। আগামী বছর মেঘালয় বিধানসভার নির্বাচনে অংশ নেবে বাংলার শাসকদল। সেই লক্ষ্যেই বুধবার মেঘালয়ে নতুন দলীয় কার্যালয়ের সূচনা করলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। একই সঙ্গে এদিন দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে বার্তাও দিলেন তিনি। গর্জে উঠলেন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে।

এদিন অভিষেক বলেন, ‘সবাইকে ধন্যবাদ এখানে তৃণমূল কংগ্রেসকে শক্তিশালী করার জন্য৷ এখনও ভোটের ছয় মাস বাকি আছে। গণতন্ত্রে মানুষই শেষ কথা বলবে। ২০১৮ সালে মানুষের ভোটে যারা ক্ষমতায় এল তারা কাজ করছে না। এই সরকার বিজেপির হাতের পুতুল হয়ে আছে।’

এদিন অভিষেক আরও বলেন, ‘আমি ডঃ সাংমা এবং পিংরোপকে ধন্যবাদ জানাব, এটা বুঝতে পারার জন্য যে বিজেপিকে হারাতে পারে একমাত্র তৃণমূলই। বাংলার ফলাফল আপনারা দেখেছেন, কীভাবে আমরা বিজেপিকে উড়িয়ে দিয়েছি। আজ দেশের অধিকাংশ রাজনৈতিক দলকে কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে তাড়া করা হচ্ছে। আমাকেও করা হচ্ছে। আমাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা জেরা করা হয়েছে। কিন্তু অন্য দলগুলির থেকে তৃণমূলের পার্থক্য এটাই, আমাদের যখন হেনস্তা করা হয়, আমরা তার দ্বিগুণ প্রত্যয়ে দেশকে বিজেপির স্বৈরাচার মুক্ত করার জন্য লড়াই করি।’

মেঘালয়ের বিশ্বাস জিততে অভিষেক আরও বলেন, ‘মেঘালয় দিল্লি বা গুজরাতের সামনে মাথা নীচু করবে না। উত্তর পূর্ব ভারত ভগবানের, শান্তির, সম্প্রীতির। বিজেপির একাধিক বড় বড় নেতা এসেছিল বাংলায়। আমরা তাঁদের জায়গা কোথায় তা দেখিয়ে দিয়েছি।’

মেঘালয়ে তৃণমূল যে বহিরাগত নয় তা প্রমাণ করতে অভিষেক জানিয়েছেন, তৃণমূল জিতলেও মেঘালয়কে বাংলা শাসন করবে না। এখানের অধিবাসী খাসি, গারো, জয়ন্তিয়ারাই থাকবেন কারণ মুকুল সাংমা সহ বিধায়করা এখানেরই স্থানীয় বাসিন্দা।

কংগ্রেস এবং বিজেপির গোপন আতাঁত প্রকাশ্যে এনে দিয়েছে মেঘালয়, শিলংয়ে দাঁড়িয়ে একযোগে এভাবেই জাতীয় স্তরের দুই দলকে বিঁধলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেকের কটাক্ষ, যারা মুখে বিজেপিকে হারানোর কথা বলে তাঁরাই মেঘালয়ে বিজেপি সমর্থিত সরকারকে সমর্থন করছে, এর থেকে মজার আর কিছু হতে পারে না।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories