Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আরও কাছাকাছি দুই ২৪ পরগনা, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর উদ্বোধন বোয়ালঘাটা সেতুর

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

বাম আমলে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের হাতে এই বোয়ালঘাটা সেতুর শিলান্যাস হয়, তবে পরবর্তীকালে বেশ কিছু সমস্যার কারণে সেতুর কাজ আটকে যায়। চালু করা যায়নি সেটি । দীর্ঘদিন পরে আজ সেই সেতুর উদ্বোধন করা হল। বহু প্রতীক্ষিত ওই সেতুর উদ্বোধন করতে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিভিন্ন মন্ত্রীরা । ভার্চুয়াল মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেতুটির উদ্বোধন করেন । বসিরহাট মহকুমার হাড়োয়া এবং মিনাখাঁ বিধানসভার সংযোগস্থল বিদ্যাধরী নদীর উপরেই এই বোয়ালঘাটা সেতুর অবস্থান । আর এই সেতুর মাধ্যমে উত্তর ২৪ পরগনা এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা এই দুই জেলার দূরত্বকে আরও কমিয়ে আনা সম্ভব হল।

এদিন সেতুটি উদ্বোধন করতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন সুন্দরবন বিষয়ক মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা, বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এবং খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষ। এছাড়াও জেলার অন্যান্য বিধায়করা সেখানে উপস্থিত ছিলেন। জানা যায় সেতুটি তৈরি করতে খরচ হয়েছে সর্বমোট ৫ কোটি ২৮ লক্ষ টাকা এই সেতুটি প্রায় সাড়ে ৮ মিটার চওড়া এবং লম্বায় এটি ১০৬.২ মিটার। এই সেতু উদ্বোধনের মাধ্যমে এবার হাড়োয়া ,মিনাখাঁ, সন্দেশখালি ,হিঙ্গলগঞ্জ সহ বিভিন্ন ব্লকের মানুষ খুব সহজেই উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার শহর বারাসাতে এসে পৌঁছতে পারবেন । তাদেরকে বাড়তি ৫০ কিলোমিটার পথ ঘুরে আসতে হবে না।

এই সেতুর মাধ্যমে মাত্র ২০-২২ কিলোমিটারেই একেবারে বারাসাত জেলা সদরে এসে পড়তে পারবেন ওই সমস্ত এলাকার সাধারণ মানুষ । এছাড়াও ব্রিজের দুই প্রান্তে বিস্তীর্ণ ফাঁকা এলাকা রয়েছে যা পরবর্তীতে কোন প্রয়োজনীয় কাজে লাগতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে ।যার কারণে স্বাভাবিকভাবেই অত্যন্ত খুশি তাঁরা। বাম আমলে যে সেতু তৈরি হওয়ার কথা ছিল সেই সেতুর কাজ জমি-জটের কারণে আটকে পড়ে। আর এতদিন পর অবশেষে সেতুটিকে সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দেওয়ায় প্রায় তিন লক্ষ মানুষ উপকৃত হবেন বলে মনে করা হচ্ছে। এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে সকলকে সঙ্গে নিয়ে উদ্বোধন করা হয় বোয়ালঘাটা সেতুর।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories