Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

উদয়পুরের ঘটনা নিয়ে ট্যুইট মমতার, পালটা খোঁচা দিলেন শুভেন্দু

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

রাজস্থানের উদয়পুরে যুবকের মুণ্ডচ্ছেদের ঘটনায় তোলপাড় দেশ। বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মার বক্তব্য সমর্থন করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন কানহাইয়া লাল নামের ওই দরজি। এরপরই তার দোকানে ঢুকে তাঁকে নৃশংস ভাবে হত্যা করে দুই আততায়ী। ঘটনার ভিডিও তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তারা। এই ভয়ংকর ঘটনায় স্তম্ভিত দেশ। এই পরিস্থিতিতে বুধবার সকালে হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা করে ট্যুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে সকলকে শান্তি বজায় রাখার আর্জিও জানান তিনি।

এদিন সকালে ট্যুইটারে মমতা লেখেন, ‘হিংসা ও উগ্রপন্থা কোনও ভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। উদয়পুরে যা ঘটেছে আমি তার তীব্র নিন্দা করছি। আইন যা করার করবে, আমি সকলকে শান্তি বজায় রাখার আর্জি জানাচ্ছি।’

আর মমতার এই ট্যুইটের প্রেক্ষিতেই কটাক্ষ করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এদিন মমতার একটি সভার বক্তব্য ঘিরে ভিডিও ট্যুইটারে আপলোড করে তোপ দেগেছেন শুভেন্দু অধিকারী। মূলত, ২১ জুলাই যেখানে মমতা বলেছেন, ‘২১ জুলাই আমাদের শহিদ তর্পনের দিবস। ২১ জুলাই বিজেপির বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণার দিবস।’ এই ভিডিও আপলোড করে নিরপত্তা ইস্যুতে ‘হুমকি’ বলে ব্যাখ্যা করেছেন বাংলার বিরোধী দলনেতা। স্বাভাবিকভাবেই এহেন স্পর্শকাতর পরিস্থিতিতে মমতার ভিডিও আপলোড করে শুভেন্দু ট্যুইট যে যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ, বলে চাপান উতোর রাজনৈতিক মহলে।

কাপড় তৈরির বাহানায় মঙ্গলবার দুপুরে কানহাইয়া লালের দোকানে আসে অভিযুক্ত রিয়াজ এবং ঘাউস মহম্মদ। একজন ভিডিও করছিল। অপরজনের পোশাকের মাপ নিচ্ছিলেন কানহাইয়া লাল। তারপরই কানহাইয়া লালের উপর হামলা চালায় কট্টরপন্থীরা। চিৎকার করে দোকান থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন কানহাইয়া লাল। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কানহাইয়া লালের গলা কেটে দেয় কট্টরবাদীরা ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories