Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘আমার স্বামীকে হত্যা করেছিল, মানুষ যোগ্য জবাব দিয়েছে TMC-কে’, মন্তব্য তপন কান্দুর স্ত্রী পূর্ণিমার

।। প্রথম কলকাতা।।

পুরভোটের ফল প্রকাশের কিছুদিন পরেই খুন হয়েছিলেন ঝালদা পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের কংগ্রেস কাউন্সিলর তপন কান্দু। এখনো যে খুনের তদন্ত এখনো চলছে। এবার উপনির্বাচনে এই ওয়ার্ডে জয়লাভ করলেন কংগ্রেস প্রার্থী মিঠুন কান্দু, যিনি তপন কান্দুর ভাইপো। ৭৭৮ ভোটে জয়লাভ করেছেন তিনি। ভোটের এই ফলাফলের পর সংবাদমাধ্যমে বক্তব্য রাখলেন মৃত কংগ্রেস নেতা তপন কান্দুর স্ত্রী পূর্ণিমা কান্দু। এই জয় প্রসঙ্গে তিনি জানান, “এই জয় আমার স্বামীর রক্তের জয়।”

পূর্ণিমা কান্দু জানান, “এই জয় আমার স্বামীর রক্তের জয়। এই জয় ঝালদার মানুষের জয়। এই জয় ২ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষের জয়। ২ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষেরা মিঠুনকে প্রার্থী করেছিলেন। আমিও চেয়েছিলাম পরিবার থেকে প্রার্থী হোক। ২ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষেরা আমার স্বামীকে জিতিয়ে ছিলেন। এবার মিঠুনকে জয়ী করে তাঁরা যোগ্য জবাব দিয়েছেন।”

এরপর তৃণমূলের বিরুদ্ধে তাঁর বক্তব্য, “তৃণমূলের নেতারা চাননি যে, আমার স্বামী চেয়ারম্যানের আসনে বসুক। তার জন্য আমার স্বামীকে হত্যা করেছে। ওরাই উপনির্বাচন করেছিল। যাতে আবার নতুন করে তৃণমূলের প্রার্থী দিয়ে জয়ী করবে বলে। সেটা দু নম্বর ওয়ার্ডের মানুষেরা ভালোভাবেই জবাব দিয়েছেন। হেরে গিয়েই আমার স্বামীকে হত্যা করেছিল। এটা তৃণমূলের সব নেতাদের কাজ।”

আবার মানুষের উদ্দেশ্যে তিনি জানান, “২ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষকে আমি অনেক অনেক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমার স্বামীকে তো ২ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষেরা ভালোবেসে জয়ী করেছিলেন। এখনও তারা তার প্রমাণ দিয়ে দিয়েছেন। আমার স্বামীর স্বপ্ন ছিল দু নম্বর ওয়ার্ডের উন্নয়নের। সেটা আমরা নিশ্চয়ই পূরণ করব।” আবার, ভোটের ফলাফলের পর বিজয়ী কংগ্রেস প্রার্থী মিঠুন কান্দুর বক্তব্য, “এই জয় প্রত্যাশিত। আমাকে নয়, এই ওয়ার্ডের মানুষ আমার কাকাকে জিতিয়েছেন। সবাইকে অভিনন্দন। এই জয় উত্‍সর্গ করলাম কাকাকেই।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories