Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Beleghata:বেলেঘাটার রক্তদান শিবিরের ব্যাপক উত্তেজনা,অভিযুক্ত স্থানীয় কাউন্সিলর

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

রাজ্যের শাসক দল বর্তমানে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জর্জরিত ।এহেন মন্তব্য প্রায়ই শোনা যায় বিরোধীদলের তরফ থেকে। তবে এই মন্তব্য একেবারে যুক্তিহীন নয় কারণ প্রতিনিয়ত রাজ্যের কোথাও না কোথাও তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের খবর প্রকাশ্যে আসে । আবারও বেলেঘাটার একটি রক্তদান শিবিরকে কেন্দ্র করে এলাকার দুই তৃণমূল গোষ্ঠীর মধ্যে ব্যাপক বচসা। হাতাহাতি পর্যন্ত গড়ায় ঘটনাটি । এই ঘটনায় অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর আশুতোষ দাসের অনুগামীদের বিরুদ্ধে । যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি।

ঘটনাটি হল , বেলেঘাটা ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল নেতা হলেন বীরেন দত্ত। তিনি নিজের উদ্যোগে একটি রক্তদান শিবিরের আয়োজন করেছিলেন । তবে সেই শিবিরের আয়োজনের মধ্যে এসেই হামলা চালায় স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর আশুতোষ দাসের অনুগামীরা এমনকি সেখানে উপস্থিত লোকজনকে মারধর করা হয় । এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। যার কারণে ওই তৃণমূল নেতা অভিযোগ জানাতে আসেন এলাকার বিধায়ক পরেশ পালের কাছে। তাঁর অভিযোগ, তিনি একজন তৃণমূলের কর্মী। তবে তাঁর সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিচিতি রয়েছে এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে তাঁর যাতায়াত রয়েছে বলে দাবি তাঁর। যে কারণে স্থানীয় কাউন্সিলর এই বিষয়টি মেনে নিতে পারেন না।

এছাড়াও তিনি স্থানীয় কাউন্সিলর আশুতোষ দাসকে খোঁচা মেরে বলেন ,তাঁর আয়োজন করা রক্তদান শিবিরে ২০০ থেকে ২৫০ জন রক্ত দান করতে আসেন। কিন্তু কাউন্সিলরের রক্তদান শিবিরে খুব জোর ২২-২৩ জন । এই বিষয়গুলি চক্ষুশূল হয়ে উঠেছে স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলরের। যে কারণে তিনি নিজের অনুগামীদের দিয়ে এই হামলা চালিয়েছেন । এই প্রসঙ্গে কাউন্সিলর আশুতোষ দাস বলেন, যে ওয়ার্ডে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়েছে সেই ওয়ার্ডে সবাই তাঁর অনুগামী। সেক্ষেত্রে যাই হয় তাতেই নিশানায় থাকেন তিনি । পাশাপাশি এই ধরনের অভিযোগের কোনো যুক্তিসঙ্গত কারণ তিনি খুঁজে পাননি বলে জানিয়েছেন। তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে মনোমালিন্যের প্রসঙ্গে বিধায়ক পরেশ পালকে বিশেষ কোনো মন্তব্য করতে শোনা যায়নি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories