Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Dumdum: তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ, কাঠগড়ায় বহিষ্কৃত TMC নেতা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

দমদমের পরিস্থিতি বর্তমানে প্রায়ই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। পুরসভা নির্বাচনের পর থেকেই অশান্ত দমদম বিধানসভার দক্ষিণ দমদম এলাকা । তবে এবার তৃণমূল কর্মী-সমর্থককে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বহিষ্কৃত এক নেতার বিরুদ্ধে ।তাঁর নেতৃত্বে এলাকার কিছু দুষ্কৃতী এই কাজ করেছে বলে অভিযোগ। বর্তমানে গুরুতর আহত ওই তৃণমূল কর্মী চিকিৎসাধীন রয়েছেন হাসপাতালে। এই ঘটনায় রীতিমত বিক্ষুব্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা। পাশাপাশি এই ঘটনায় সরব হয়েছেন দমদমের টাউন সভাপতি রাজু সেন শর্মা।

স্থানীয় সূত্রে খবর , গত কাল রাতে দমদম দক্ষিণ পুরসভা এলাকার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বুথ কর্মী গৌতম বিশ্বাস দলীয় কার্যালয় থেকে বাড়িতে ফিরছিলেন। তবে আচমকাই তাঁর পথ আটকায় বেশ কিছু দুষ্কৃতী । তাঁরা গত বিধানসভা নির্বাচনে বহিষ্কৃত নেতা প্রবীর পালের অনুগামী। তাঁরাই ব্যাপক মারধর করে ওই তৃণমূল কর্মীকে। ঘটনাটি ঘটেছে ১২ নম্বর ওয়ার্ডের মধুগড় এলাকায় । আহত বুথ কর্মী গৌতম বিশ্বাসকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নিয়ে আসা হয়েছে দমদম গোরাবাজার হাসপাতালে।

এই ঘটনায় দমদমের টাউন সভাপতি রাজু সেন শর্মা জানান, গত বিধানসভা নির্বাচনে দল বিরোধী কাজ করার জন্য প্রবীর পালকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল । বর্তমানে তিনি এলাকার কিছু দুষ্কৃতীদেরকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন আর তাঁরাই এবার তৃণমূলের পুরনো কর্মী সদস্যদের মারধর করার ঘটনা ঘটাচ্ছে । শান্ত দমদমকে ফের অশান্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে প্রবীর পাল এবং তাঁর অনুগামীরা । এই বিষয়টি সম্পর্কে দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রবীর পাল বিধানসভা নির্বাচনের সময় বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে ছিল। সেই সময় দলকে জেতানোর জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন গৌতম বিশ্বাসের মত পুরনো দলীয় কর্মীরা।

আর তারপর দ্বিগুণ ভোটে সেখানে জয়যুক্ত হয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু বর্তমানে দল বহিষ্কৃত ওই নেতা তৃণমূল কর্মী সদস্যদের ওপরেই হামলা চালাচ্ছে। ইতিমধ্যেই গতকালকের ঘটনা সম্পর্কে থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে প্রবীর পাল এবং তাঁর অনুগামীদের বিরুদ্ধে। ওই এলাকায় পূর্বেও সমাজবিরোধী কাজ করার জন্য প্রবীর পালের অনুগামীরাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের করা রয়েছে । এই ঘটনাকে ঘিরে এখনও পর্যন্ত বেশ উত্তেজনা এলাকায়।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories