Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ফের ধস সিকিমের কালিঝোরায়, ১০নম্বর জাতীয় সড়কে স্তব্ধ যান চলাচল

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

ফের স্তব্ধ ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক। মঙ্গলবার একেবারে ভোরের দিকে কালিঝোরার কাছে ধস নামে জাতীয় সড়কের ওপর। ফলে সকাল থেকেই সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যায় সিকিম সংযোগকারী জাতীয় সড়কে যানচলাচল।সেবক থেকে ঠিক ৫মিনিট দূরে এই ধস নামে নতুন করে। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকার মানুষদের মধ্যে। এদিন ভোরে পাহাড়ের গা বেয়ে হুড়মুড় করে ধস নামতে থাকে। হতে পারত বড় বিপদ এমনই বলছেন সকলে।

গত কয়েক দিন ধরেই প্রবল বৃষ্টির জেরে সিকিমে কার্যত ঘরবন্দি থাকতে হচ্ছে পর্যটকদের। তারা জানিয়েছেন, প্রবল বৃষ্টির জেরে এলাকা কার্যত শুনশান। এর মধ্যে নতুন করে এই ধস যে নতুন করে ভয় ধরাচ্ছে তা বলাই বাহুল্য।দিনকয়েক আগেই সিকিম সীমানায় লিংশাখায় ধসের জেরে ভেঙে পড়ে একটি নদী ব্রিজ। যার জেরে ওই দিক দিয়েও বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। এর পাশাপাশি শিলিগুড়ি থেকে সিকিমগামী ১০ নম্বর জাতীয় সড়কে ধীর গতিতে যান চলাচলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে। সেই নিয়ম এখনও জারি আছে।

ধসের বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কোথায় কী ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কালিম্পঙের আরও কয়েকটি জায়গায় ছোট ছোট ধসের খবর মিলেছে। যে সব রাস্তার উপর ধস নেমেছে, সেইগুলি দ্রুত সারাই করে রাস্তার খোলার কাজ চলছে। পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হবে বলেও আশা করা হচ্ছে।দিনকয়েক আগেই উত্তর সিকিমের রংপো-সিংটাম রোডে বেশ কয়েকটি জায়গায় ধস নামে। যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এর ফলে উত্তর সিকিমের সঙ্গে গ্যাংটকের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। রাস্তা পরিষ্কারের কাজ চলছে।

তবে উত্তরবঙ্গে যে এই বর্ষণ পরিস্থিতি জারি থাকবে তা জানানো হয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে। উত্তরবঙ্গ এবং সিকিমে অতিরিক্ত বৃষ্টির পরিমাণ এখনও পর্যন্ত ৫১ শতাংশ। মঙ্গল এবং বুধবার ফের উত্তরবঙ্গে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে। দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি জেলায় মঙ্গলবার কয়েক পশলা ভারি বৃষ্টি হতে পারে।  উত্তরবঙ্গের বাকি জেলায় অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি জেলায় মঙ্গলবার থেকে টানা অতি ভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি করা হয়েছে। বাড়তে পারে নদীর জলস্তর। পার্বত্য এলাকায় ধস নামার সম্ভাবনা রয়েছে। বিপর্যস্ত হতে পারে উত্তরের জনজীবন। 

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories