Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

South 24 Pargana: শুভেন্দুর মিছিলে অংশ নেওয়াই অপরাধ! বেধড়ক মারধর বিজেপি কর্মীকে

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

ক্যানিংয়ে এক বিজেপি কর্মীকে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে । জানা যায় ওই বিজেপি কর্মীর অপরাধী তিনি বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর মিছিলে অংশ নিয়েছিলেন। যার কারণে বাড়িতে এসে তাঁর উপরে হামলা চালায় তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদেরকেও গালিগালাজ করা হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছেন ওই বিজেপি কর্মী। চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং থানার অন্তর্গত ক্যানিং বাস স্ট্যান্ড এলাকায়। সেখানকার বাসিন্দা হলেন শঙ্কর দাস । তিনি বিজেপি সমর্থক হিসেবে পরিচিত । গত ২৪ জুন বারুইপুরে বিজেপির একটি মিছিল এবং জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। আর তাঁর সেই মিছিলে অংশ নেন শঙ্কর দাস । যার কারণে তাঁর উপরে হামলা চালায় তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সদস্যরা। শঙ্কর দাসের অভিযোগ, তিনি কোনো দলীয় পতাকা হাতে নিয়ে মিছিলে নামেন নি কিন্তু বিজেপির মতাদর্শে বিশ্বাসী হওয়ায় দর্শক হিসেবে জনসভায় গিয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন।

বাড়িতে ফিরে আসার পর প্রায় ১৫-২০ জন তৃণমূল কর্মী সেখানে এসে উপস্থিত হয়। তাঁর পরিবারের সদস্যদের গালিগালাজ করা হয় পাশাপাশি তাদের সামনেই শঙ্করকে ব্যাপক মারধর করে অভিযুক্তরা। এই ঘটনায় গুরুতর জখম ওই বিজেপি কর্মী ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। যদিও তৃণমূলের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ক্যানিং পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক পরেশ রামদাস। তিনি বলেন, প্রথমত তিনি বিজেপি কর্মী শঙ্কর দাসকে চেনেন না। এই ধরনের কোন ঘটনা আদৌ ঘটেছে কি না সে বিষয়ে তিনি কোনরকম খবর পান নি। আর তাছাড়াও শুধু বারুইপুর কেন ক্যানিংয়েও যদি শুভেন্দু অধিকারী জনসভা করেন তাতে তৃণমূলের কিছু বলার নেই।

কারণ তাঁর মতে এই রাজ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল রয়েছে । তাদের নিজেদের সমর্থক রয়েছে । সেই সর্মথকরা কার জনসভায় যোগ দান করবেন কার জনসভায় যোগদান করবেন না তা সম্পূর্ণ তাদের ব্যক্তিগত মতামত । সেখানে বিজেপির জনসভা বিজেপি কর্মীর উপস্থিতিকে কেন্দ্র করে এই মারধরের ঘটনা একেবারেই অপ্রত্যাশিত । বরং এই ঘটনাকে পারিবারিক দ্বন্দ্ব হিসেবে চিহ্নিত করেছেন তিনি । পাশাপাশি তিনি জানান, কোনভাবেই তৃণমূল এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। কারণ তাঁর দাবি এরকম রাজনীতি তৃণমূল কংগ্রেস করে না।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories