Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

গণনাকেন্দ্রে দেখা মানিক সুদীপের, সৌজন্য সাক্ষাৎ-এর সাক্ষী থাকলো ত্রিপুরা

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

দু’জনেই যুযুধান বিরোধী। একজন রাজ্য সভাপতি থাকাকালীন, অপরজন দল ছেড়ে বেরিয়ে আসেন। একজন বিরোধী দলে যোগ দেওয়ায় পদত্যাগ করেন বিজেপি বিধায়ক হিসাবেই৷ আর তার ছেড়ে যাওয়া আসনেই হল নির্বাচন। একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। আর একজন বিরোধী দলে গিয়ে ফের জিতে বিধায়ক হলেন। রবিবাসরীয় ত্রিপুরার উপ নির্বাচনের ফলাফলের পর ফের দেখা হল তাদের।

যে দুজনকে নিয়ে কথা হচ্ছে তার মধ্যে একজন বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা। আর একজন হলেন কংগ্রেসের সুদীপ রায় বর্মণ। আজ ফলাফল বেরোনোর পর তাদের দেখা হয় আর মিনিট তিনেকের এই সৌজন্যের ছবি ভাইরাল হতে বেশি সময় নেয়নি। রাজনৈতিক মহলের মতে, মানিক সাহা দায়িত্ব নিয়েই বলেছিলেন তিনি সকলের সাথে সু-সম্পর্ক বজায় থাকবে।

এদিন আগরতলায় গণনাকেন্দ্রে দেখা হল মুখোমুখি দুই প্রাক্তন রাজনৈতিক সতীর্থর। সার্টিফিকেট নিয়ে নেমে আসছেন সিঁড়ি দিয়ে সুদীপ রায় বর্মণ। আর তখনই সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মাণিক সাহা। মানিক সাহাকে দেখেই হাত বাড়িয়ে দেন সুদীপ রায় বর্মণ। করমর্দন করেন দু’জনেই। সুদীপ বলেন, অনেক অনেক অভিনন্দন আপনাকে।

উল্লেখ্য সুদীপ রায় বর্মণ বুঝিয়ে দিলেন ব্যক্তিগত ক্যারিশমা বলে একটা বিষয় আছে। আর মানুষ তাকেই চায়। তবে দুই শীর্ষ নেতার সৌজন্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। কারণ ফল প্রকাশের পরেই ব্যাপক মারামারি হয় আগরতলায় দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে।

ত্রিপুরাকে পাখির চোখ করা তৃণমূল চারটের কোনও আসনেই আশাপ্রদ ফল করতে পারেনি। সব কেন্দ্রেই শোচনীয় ফল তাদের। যেমন, টাউন বড়দোয়ালি কেন্দ্রের তৃণমূলের ওজনদার প্রার্থী সংহিতা ভট্টাচার্য পেয়েছেন মাত্র ৯৮৬টি ভোট। অন্য দিকে, বাম প্রার্থী পান ৩,৩৭৬টি ভোট। বস্তুত, রবিবার ত্রিপুরার চার বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের ফলেও দেখা গিয়েছে গেরুয়া ঝড়। অন্য দিকে, তৃণমূল গড়ে ৩ শতাংশ ভোট পেয়েেছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories