Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ঘরওয়াপসি বীরভূমের গদাধর হাজরার, বছর তিনেক পরে ফের হাতে তুলে নিলেন তৃণমূলের পতাকা

।। প্রথম কলকাতা।।

একসময়ের অনুব্রত ঘনিষ্ঠ বীরভূমের গদাধর হাজরা মুকুল রায়কে অনুসরণ করে যোগদান করেছিলেন বিজেপিতে । কিন্তু বছর তিনেক পরে ফের নিজের পুরনো দলের দিকে পা বাড়িয়েছেন তিনি। ২০১৯ এর পর এতগুলি বছর বিজেপিতে কাটিয়েছেন, এবার ঘাসফুল শিবিরে ফিরে এসেছেন তিনি। শনিবার নানুরে তৃণমূলের একটি কর্মী সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। আর সেই কর্মী সম্মেলনই তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন বিজেপির গদাধর হাজরা। শুধু তিনি নন, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ভরাডুবি হওয়ার পর একে একে ঘরে ফিরে এসেছেন বহু।

তাদের তালিকায় এবার নাম জুড়ল গদাধর হাজরার। তিনি নানুর বিধানসভা আসন থেকে তৃণমূলের টিকিটে লড়াই করেছিলেন যখন রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসে। জয়ী হয়েছিলেন তিনি । বিধায়কের দায়িত্ব পেয়েছিলেন ।এরপর ২০১৬ সালে নানুর থেকেই নির্বাচনে লড়েছিলেন তৃণমূলের হয়ে। কিন্তু সেই সময় ভাগ্য সাথ দেয়নি, তাই বামেদের কাছে পরাজিত হয়ে গিয়েছিলেন। অবশেষে তিনি ২০১৯ সালে বিজেপিতে যোগদান করবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন। সেই অনুযায়ী মুকুল রায়কে অনুসরণ করে গিয়ে পৌঁছলেন দিল্লিতে। সেখানে কৈলাস বিজয়বর্গীর হাত ধরে যোগদান করেন গেরুয়া শিবিরে, হাতে তুলে নেন পদ্মফুল চিহ্নের পতাকা।

তবে অবশেষে সেই নিজের পুরনো দলেই ফিরতে হল তাকে । যদিও তাকে দল সাদরে গ্রহণ করে নিয়েছে শনিবার নানুনের কীর্ণাহার দুই নম্বর অঞ্চলের কর্মী সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা অভিজিৎ সিনহা এবং বোলপুরের লোকসভার সাংসদ অসিত মাল। তাঁরাই তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে দেন গদাধর হাজরার । আর দলবদলের পরেই গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে সুর চড়ান তিনি । প্রাক্তন বিজেপি নেতা কটাক্ষ করে বলেন, দিলীপ ঘোষের কথা শুনে তিনিও সোনা খুঁজতে গিয়ে ছিলেন , তবে ফাঁকা হাতে ফিরে আসতে হয়েছে তাকে , সোনা পাননি। এমনকি তিনি বলেন, ভবিষ্যতে বিজেপিতে যোগদান করার ইচ্ছে প্রকাশ করবে না কেউ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories