Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ঘড়ি পরা বাচ্চাদের দিয়ে গাড়ি পরিষ্কার করাচ্ছেন ? ভয়ঙ্কর বিপদ, ফাঁকা হয়ে যাবে অ্যাকাউন্ট

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

হাতে স্মার্টঘড়ি পরে আপনার গাড়ি পরিষ্কার করে দিচ্ছে। তারপর কিছুক্ষণ পরে দেখবেন আপনার অ্যাকাউন্টে টাকা নেই। আপনি হয়ত বুঝতে পারবেন না , আসল কারণটা কি। এই সমস্যার ভুক্তভোগী অনেকেই। সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওর দাবি অনুযায়ী, গাড়ি পরিষ্কার করাতে গিয়ে অনেকই টাকা খোয়াচ্ছেন। আসলে এর পিছনে রয়েছে এক ধরনের জালিয়াতি । যেখানে অনৈতিক ভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে ফাস্ট্যাগ (Fastag)কে।আসলে ফাস্ট্যাগ কাজ করে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি আইডেন্টিফিকেশন প্রযুক্তিতে । প্রায় তিন বছর আগে কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রক জাতীয় সড়কে টোল দেওয়ার ব্যবস্থা আরো সরল করতে এই পদ্ধতি নিয়ে আসে।

ফাস্ট্যাগ হল এক ধরনের ট্যাগ বা পাতলা কার্ড , যেখানে গাড়ির ডিজিটাল তথ্য ইনপুট করা থাকে। যখন টোল প্লাজার মধ্য দিয়ে গাড়ি যাবে তখন ওই ট্যাগ স্ক্যান হতেই খুলে যাবে পাসিং গেট। এটি থাকলে তখন আর চালককে টোল প্লাজায় লম্বা লাইনে গিয়ে দাঁড়াতে হয় না । গাড়ি না থামিয়েই টোলের টাকা দিয়ে দেওয়া যায়। আসলে ওর সঙ্গেই যুক্ত থাকে একটি অ্যাকাউন্ট । সেখান থেকেই নিয়ে নেওয়া হয় টাকা। তবে সর্বদা ওই অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত পরিমাণে টাকা রাখতে হয়। এবার সেই ফাস্ট্যাগকে ব্যবহার করেই শুরু হচ্ছে জালিয়াতি। গাড়ি থামিয়ে গাড়ি পরিষ্কার করার অজুহাতে ডিজিটাল ভাবে চুরি করে নেওয়া হচ্ছে টাকা।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি সতর্কতামুলক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যায় গাড়ি থামিয়ে এক শিশু গাড়ি পরিষ্কার করে দেবে বলে। তার হাতে ছিল একটি স্মার্টওয়াচ। হঠাৎ করেই গাড়ির উপরে উঠে সামনের দিকে বাঁ হাত দিয়ে ঘড়িটি কাচের গায়ে কিছুক্ষণ রেখে দেয় গাড়ি পরিষ্কার করার অছিলায়। ওই ভিডিওটি যারা পোস্ট করেছেন তাদের দাবি অনুযায়ী, ওই ঘড়ি দিয়েই শিশুটি ফাস্ট্যাগ স্ক্যান করছে। যার কারণে অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা সহজেই তুলে নিতে পারছে জালিয়াতরা। তবে এই ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে ফাস্ট্যাগ। তারা বলেছে, এই প্রযুক্তি একেবারেই নিরাপদ কারণ এক্ষেত্রে যাদের শুধুমাত্র রেজিস্ট্রেশন করা থাকবে তারাই লেনদেন করতে পারবে। আপনিও নিজের চোখেই দেখুন সেই ভিডিও।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories