Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্নীতিগ্রস্ত বলেই মুকুল পিএসি চেয়ারম্যান’, তীব্র কটাক্ষ সেলিমের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

শুক্রবার সিপিএম পূর্ব বর্ধমান জেলা কমিটির উদ্যোগে একটি দলীয় অনুষ্ঠানে বর্ধমান শহরে এসেছিলেন মহম্মদ সেলিম। দলীয় অনুষ্ঠান শেষে অগ্নিপথের বিরোধিতায় বর্ধামানের কোর্ট কম্পাউন্ড থেকে বর্ধমান স্টেশন পর্যন্ত মিছিলে অংশগ্রহণ করেন তিনি। সেখানেই অগ্নিপথ প্রকল্প সহ একাধিক বিষয়ে মন্তব্য করলেন তিনি।

দীর্ঘ বিতর্ক, জল্পনার পরও প্যাক চেয়ারম্যান পদে থাকছেন মুকুল রায়। পিএসি-সহ মোট ১৫ টি কমিটির মেয়াদ ৪ জুলাই শেষ হওয়ার কথা। ওই সব কমিটির সদস্য বা চেয়ারম্যান বদল করা হচ্ছে না। সুতরাং পিএসির চেয়ারম্যান হিসেবে রয়ে যাচ্ছেন মুকুল রায়ই। আর এই নিয়েই তীব্র কটাক্ষ করলেন মহম্মদ সেলিম।

তিনি প্রশ্ন তোলেন মুকুল রায়কে আগে ঠিক করতে হবে তিনি কোন যুক্তিতে বিধানসভায় রয়েছেন। স্পীকার বলেছেন তিনি অযৌক্তিক কাজ করছেন। তার আরও দাবি যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানেন তিনি দুর্নীতি করবেন তাই তিনি নিজের দলের লোককেই পিএসি-র চেয়ারম্যান করেছেন।

এদিন তিনি আরও বলেন, ‘এখন অনেক নতুন ট্রেণ্ড হচ্ছে। নিজেরা দল তৈরি করে নিজেরাই বহিষ্কৃত হচ্ছেন।বিস্ফোরক দাবি করে সেলিম বলেন যে মমতা-মুকুল নতুন রাজনীতি তৈরি করেছেন তা হল কেনা বেচার রাজনীতি। টাকার বিনিময়ে পুঁজিপতিরা স্পনসর করে। এখন কাউকে কোন দলের এমপি এমএলএ বলে না, এখন বলে ইনি আদানি স্পনসর ইনি আম্বানি স্পনসর।

রাজ্যের আইনব্যবস্থা নিয়েও কটাক্ষ করেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তার বক্তব্য যে ‘আমাদের রাজ্যে ২১ আইন আছে। পাগলু ড্যান্সের মাধ্যমে ২১ জুলাই সেলিব্রেট করে গোটা আইনি ব্যবস্থাটাকে এমন করে দেওয়া হয়েছে’। এই সংস্কৃতি যে অত্যন্ত লজ্জার তাও জানান তিনি। তিনি মনে করিয়ে দেন যে সংশোধিত রাজনীতিতে এটা একটা বিপদ।

অভিনেতা দেবকে ইডির জেরা প্রসঙ্গেও মন্তব্য করেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক। তিনি বলেন, জেরা করা বড় কথা নয় কবে দুর্নীতিগ্রস্থদের করবে সেটাই বড় কথা। এছাড়াও অগ্নিপথ নিয়েও সরব হন তিনি। বলেন যে এই প্রকল্প দেশের যুবকদের আরও হতাশার মধ্যে ফেলে দেবে। ৪ বছর পর অগ্নিবীরদের কাজের সুযোগ কী হবে তারা কী করবেন তা নিয়ে কিচ্ছু স্পষ্ট দিশা নেই। কেন্দ্র সরকার মানুষকে আরও হহতাশাগ্রস্ত করে তুলছে এমনই মত সেলিমের।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories