Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

BREAKING :গুজরাট দাঙ্গায় মোদীকে ক্লিনচিট দিল সুপ্রিমকোর্ট

।।প্রথম কলকাতা।।

গুজরাট দাঙ্গার ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্লিনচিট দিল সুপ্রিম কোর্ট। ইতিপূর্বে, গুজরাট দাঙ্গার ঘটনায় গুজরাটের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্লিনচিট দিয়েছিল বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট। সিটের এই সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ এহসান জাফরির স্ত্রী জাকিয়া স্ত্রী জাফরি। তাঁর হয়ে আদালতে সওয়াল করেছিলেন আইনজীবী কপিল সিব্বল। আজ শুক্রবার তা খারিজ করে দেওয়া হলো, সিটের সিদ্ধান্তকেই বহাল রাখল সুপ্রিম কোর্ট।

গত ২০০২ সালের ২৮ সে ফেব্রুয়ারি আমেদাবাদে হিংসাত্মক ঘটনায় ৬৯ জনের মৃত্যু ঘটেছিল। যাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ এসহান জাফরি। এরপর এই ঘটনার তদন্ত করতে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সিট গঠন করা হয়। পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্লিনচিট দেয় সিট। সিটের এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে গতবছর সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন জাফরির স্ত্রী জাকিয়া স্ত্রী জাফরি।

তিনি অভিযোগ করেছিলেন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও ৬২ জনের সক্রিয় ভূমিকা ছিল গুজরাটের দাঙ্গায়। কিন্তু আজ সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে জানানো হলো, ২০০২ সালে গুজরাট দাঙ্গায় তত্কালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্লিনচিট দিয়েছিল সিট, সেটাই বহাল রাখা হচ্ছে। কংগ্রেস সাংসদের মৃত্যুর কারণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ক্লিনচিট বাতিল করে দেওয়ার আবেদনের কোন সারবত্তা নেই।

প্রসঙ্গত, গুজরাটের গোধরায় ট্রেনের কামরায় আগুন ধরিয়ে দেবার ঘটনায় ৫৯ জনের মৃত্যু হয়। এরপরেই আমেদাবাদের গুলবার্গ সোসাইটিতে হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে। যে ঘটনায় ৬৯ জনের মৃত্যু ঘটেছিল। এই ঘটনার তদন্ত করে সিট। ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়। যেখানে প্রধানমন্ত্রী তথা গুজরাটের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ছাড়াও একাধিক ব্যক্তিকে ক্লিনচিট দেওয়া হয়।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories