Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘মহারাষ্ট্রে সরকার ফেলতে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি’, নবান্ন থেকে কটাক্ষ মমতার

।।প্রথম কলকাতা।।

মহারাষ্ট্রে ‘মহা’সংকটে উদ্ধব সরকার। যে কোন মুহুর্তে সরকার পড়ে যেতে পারে। আর মহারাষ্ট্রের এহেন পরিস্থিতি নিয়ে এ বার মুখ খুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মহা সঙ্কটের এহেন অবস্থার জন্য সরাসরি কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে নিশানা করলেন তিনি।মমতার অভিযোগ, সামনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন কিন্তু সংখ্যায় পিছিয়ে বিজেপি। আর তাই নিজেদের লড়াইয়ে টিকিয়ে রাখতে মহারাষ্ট্রে সরকার ফেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে শামিল হয়েছে গেরুয়া শিবির।

মমতার অভিযোগ ভারতের যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো বিজেপি ভেঙে গুঁড়িয়ে দিচ্ছে। তার আশঙ্কা এই অবস্থা আজ মহারাষ্ট্রে হচ্ছে, কাল অন্য রাজ্যেও বিজেপি একই খেলা দেখাবে, যা গণতান্ত্রিক দেশে কাম্য নয় বলে মত মমতার। মমতা স্পষ্ট জানিয়েছেন ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্যই এই ফন্দি। দেশের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক পরিস্থিতি চরম সঙ্কটে। প্রতিবাদ করলেই বুলডোজার চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ক্ষমতায় রয়েছে বলে টাকার বল, পেশিশক্তি দিয়ে খেলছে। কিন্তু একদিন এ সবের কিছুই থাকবে না।’ মমতা অনুরোধ জানিয়েছেন, ‘গণতন্ত্রকে এ ভাবে শেষ করবেন না। মহারাষ্ট্র সরকারের জন্য সুবিচার চাইছি আমি। গণতন্ত্রের জন্য এটা কাম্য নয়।’

মমতা আরও বলেন, ‘একটা বড় দল টাকার বিনিময়ে লোকজনকে কিনে নিচ্ছে। আসামকে দোষ দিই না। ভয়ঙ্কর বন্যায় বিপর্যস্ত গোটা রাজ্য। সেই সময় মানুষকে সাহায্য করার বদলে কেন্দ্র বিরক্ত করছে আসাম সরকারকে।বিধায়ক কেনাবেচার কাজে লাগিয়ে দিয়েছে। এই বিধায়কদের বাংলায় পাঠিয়ে দিন না! আতিথেয়তা জানি আণরা। গণতন্ত্র কীভাবে রক্ষে করতে হয়, দেখে নেব। মহারাষ্ট্রে যা ঘটছে, তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। ভারতে আদৌ গণতন্ত্র রয়েছে কিনা, সন্দেহ হচ্ছে আমার। কোথায় গণতন্ত্র?’ এই পরিস্থিতি যে গণতান্ত্রিক দেশে কাম্য নয় তা ফের মনে করিয়ে দেন মমতা।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories