Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

দুর্নীতিতে সর্বশ্রেষ্ঠ অভিষেক, যা ইতিমধ্যেই প্রমাণিত’, ফের আক্রমণ সজল ঘোষের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচির আদলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নতুন এক কর্মসূচির ঘোষণা করেছেন। যা হলো ‘এক ডাকে অভিষেক’। এর জন্য একটি টোল ফ্রি হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “যার যা সমস্যা-অভিযোগ-পরামর্শ ফোন করে জানান। এক্তিয়ার,ক্ষমতা, সামর্থ্য অনুযায়ী যা করার আমি করব।” ইতিপূর্বে ডায়মন্ডহারবার মডেল চালু করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার নতুন কর্মসূচির সূচনা করলেন তিনি। যা হলো এক ডাকে অভিষেক। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই নতুন কর্মসূচি প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা সজল ঘোষের সঙ্গে কথা বললেন প্রথম কলকাতার প্রতিনিধি মৃত্যুঞ্জয় দাস।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নয়া প্রকল্প প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা সজল ঘোষের বক্তব্য, “এইতো সিবিআই ডেকেছিল, ইডি ডেকেছিল, কোথায় এক ফোনে পাওয়া যায়। একেবারেই এক ফোনে পাওয়া যায় না। এসব মিথ্যা কথা বলছেন। সিবিআই, ইডি ডেকে পাঠালে একবার বলেন, ‘দিল্লি যেতে পারবো না’, একবার বলেন ‘পেটে ব্যথা’। একবার বলেন ‘পায়ে ব্যথা’, তারপর বলেন, ‘কলকাতায় এসে দেখা কর’। ১০ বার ডাকলে দুবার যান। আর এখন বলছেন এক ডাকে।”

তিনি আরও জানান,”মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করেছিলেন দিদিকে বলো। যেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাজে সেটা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো রাজনৈতিক বালখিল্যদের কি সাজে? সাজে না। তিনি যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নকল করতে চান, সেটা তাঁদের দলীয় ব্যাপার। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যা করছেন, সেটা পিসিমনিকেই চ্যালেঞ্জ করছেন। যেমন ডায়মন্ডহারবার মডেল। সবটাই প্রচার। যখন যেটা মনে হয়। সরকারে থাকলে যা হয়।”এরপর অভিষেককে কটাক্ষ করে তাঁর বক্তব্য, “দুর্নীতিতে তিনি সর্বশ্রেষ্ঠ। যা ইতিমধ্যেই প্রমাণিত। টাকা কামানোয় তিনি সর্বশ্রেষ্ঠ। গরু, কয়লা, ইট, বালি এসব পাচারে তিনি একদম সর্বশ্রেষ্ঠ। যা প্রমাণিত হয়ে গেছে। এজন্য অভিষেককে বারবার সিবিআই ডাকছে, ইডি ডাকছে।”

আবার, তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, তৃণমূলের বিস্তার এখন সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে হচ্ছে। রাজ্যে রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ছে সংগঠন। এ প্রসঙ্গে সজল ঘোষ জানান, তৃণমূল যদি সর্বভারতীয় হয়, বাংলায় একটা বহুল প্রচলিত কথা আছে, আরশোলাও পাখি। কিছুদিন আগে ত্রিপুরায় এত প্রচার হলো, এত ভোটে লড়ার পর একখানা কাউন্সিলর পাওয়া গিয়েছিল। সেও চলে গেছে। এক বিধায়ক এসেছিলেন মাথা ন্যাড়া করে, তিনিও চলে গেছেন। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও কদিন বাদে মাথা ন্যাড়া করে চলে যাবেন।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories