Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

পাভলভের ঘটনার পর সক্রিয় স্বাস্থ্য দফতর, তলব সরকারি হাসপাতাল গুলির স্টেট্যাস রিপোর্ট

।। প্রথম কলকাতা।।

রাজ্যের সরকারি মানসিক হাসপাতাল গুলির মধ্যে অন্যতম হিসেবে পরিচিত ছিল পাভলভ হাসপাতাল। কিন্তু স্বাস্থ্য দফতরের এক প্রতিনিধি দলের পরিদর্শনের পর ওই হাসপাতালের আসল রূপ প্রকাশ্যে আসে। যা প্রায় নরকের সমান। যার ফলে গতকালই পাভলভ হাসপাতাল সুপারকে তাঁর পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে আর জানানো হয়েছে যত দ্রুত সম্ভব হাসপাতালের বেহাল পরিস্থিতিকে আবার স্বাভাবিক করে তোলার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চলেছে স্বাস্থ্য দফতর।

এবার রাজ্যের একটি সরকারি হাসপাতালের এমন রূপ সামনে আসার পর নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। রাজ্যের অন্যান্য সরকারি হাসপাতালে মানসিক বিভাগে কী ভাবে চিকিৎসা হচ্ছে তা জানার জন্য বর্তমানে প্রত্যেকটি জেলার সরকারি হাসপাতালের রিপোর্ট তলব করল স্বাস্থ্য দফতর। মূলত এই রিপোর্টের মাধ্যমে জানতে চাওয়া হয়েছে সেই সকল সরকারি হাসপাতাল গুলির মানসিক রোগের চিকিৎসার পরিকাঠামো কেমন? মানসিক বিভাগে বেডের সংখ্যা কত ?এছাড়াও সেখানে চিকিৎসক, নার্স এবং সহকারী চিকিৎসক কতজন রয়েছেন?

তাদের সংখ্যা পর্যাপ্ত কিনা সেই সমস্ত বিষয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তলব করা হয়েছে প্রত্যেকটি জেলার সরকারি হাসপাতালগুলি থেকে। ইতিমধ্যেই রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের সচিব এই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা পাঠিয়েছেন প্রত্যেকটি জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক এবং জেলাশাসকদের। পাভলভ হাসপাতাল পরিদর্শন করার পর প্রতিনিধিদল যে রিপোর্ট পেশ করেছিলেন তাতে জানা যায় যে, ওই হাসপাতালের রোগীদের সঠিক মত চিকিৎসা তো হয়ই না বরং নরকের মত পরিস্থিতিতে তাদের রাখা হয়েছে। সেখানে কোন পশুর পক্ষে থাকাও সম্ভব নয়।

ছেঁড়াফাটা পোশাক পরিয়ে তাদের রাখা হয়,সঠিক সময়ে সঠিক পরিমাণে খাবার তাদের দেওয়া হয় না, রোগীদের জন্য কোনরকম ডায়েট চার্ট নেই, আবাসিকদেরকে একটি ঘরের মধ্যে প্রায় বন্ধ করে রাখা হয়। পাভলভ হাসপাতালে এই চরম অব্যবস্থার কথা প্রকাশ্যে আসতেই নবান্নের তরফ থেকে স্বাস্থ্য দফতরের কাছে রিপোর্ট তলব করা হয়েছিল । আর তারপরেই স্বাস্থ্য দফতরের তরফ থেকে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যার কারণে প্রত্যেকটি জেলার সরকারি হাসপাতালে স্টেট্যাস রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories