Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

সবচেয়ে সস্তা কোন গাড়িতে অটোমেটিক ট্রান্সমিশন পাওয়া যাবে? রইল একগুচ্ছ সন্ধান

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

যে কোনও চার চাকার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ পার্টস ট্রান্সমিশন। বর্তমানে বিভিন্ন গাড়িতে ম্যানুয়াল এবং অটোমেটিক এই দুই ট্রান্সমিশনের বিকল্প রাখা হয়। গাড়ি বিশেষজ্ঞদের মতে, ম্যানুয়ালের থেকে অটোমেটিক ট্রান্সমিশন অনেক বেশি কার্যকরী। এটি নিয়ন্ত্রণ করা খুব সহজ, ম্যানুয়ালের থেকে শক্তি বেশি জেনারেট করে, পাশাপাশি প্রয়োজন অনুসারে পর্যাপ্ত টর্ক উৎপাদিত হয় এই ট্রান্সমিশনে। এমনকি অনেকক্ষেত্রে জ্বালানি বাঁচাতেও সাহায্য করে অটোমেটিক ট্রান্সমিশন।

স্বাভাবিক ভাবেই এতো কিছু সুবিধা থাকায় অটোমেটিক ট্রান্সমিশন যুক্ত গাড়ির দাম ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশনের তুলনায় একটু বেশি হয়। কিন্তু তা সত্ত্বেও ভারতে এই মুহূর্তে একাধিক কম বাজেটের অটোমেটিক ট্রান্সমিশন যুক্ত গাড়ি রয়েছে। এক এক করে দেখে নেওয়া যাক সেইসব গাড়ির দাম।

Datsun Redi Go

হ্যাচব্যাক সেগমেন্টে এটি অন্যতম সাশ্রয়ী মূল্যের অটোমেটিক ট্রান্সমিশন যুক্ত গাড়ি। এই গাড়ি দুটি ইঞ্জিন অফার করা হয় একটি ০.৮ লিটার পেট্রোল ইঞ্জিন। আরেকটি ১ লিটার পেট্রোল ইঞ্জিন। ০.৮ লিটার ইঞ্জিনের সাথে ৫ স্পিড ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন দেওয়া হলেও ১ লিটার ইঞ্জিনের সাথে ৫ স্পিড অটোমেটিক ট্রান্সমিশন অফার করা হয়। Datsun Redi Go এর ARAI স্বীকৃত মাইলেজ ২১.৭ কিলোমিটার প্রতি লিটার। এই গাড়ির সর্বনিম্ন এক্স-শোরুম মূল্য ২.৮ লক্ষ টাকা থেকে শুরু। তবে অন-রোড প্রাইজ বিভিন্ন ডিলার এবং শহর অনুযায়ী ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত যেতে পারে।

Hyundai Santro

এটি পেট্রোল ইঞ্জিনের পাশাপাশি CNG ভ্যারিয়েন্টেও পাওয়া যায়। এর ইঞ্জিনের সাথে একটি ৫ স্পিড ম্যানুয়াল এবং ৫ স্পিড AMT অর্থাৎ অটোমেটিক ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশনের বিকল্প দেওয়া হয়। গ্রাহকদের রেটিংয়ের বিচারে অত্যন্ত জ্বালানি সাশ্রয়ী, আকর্ষণীয় কেবিন, ভালো নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা রয়েছে গাড়িতে। এটির এক্স-শোরুম মূল্য ৪.১৯ লক্ষ টাকা। ভ্যারিয়েন্ট অনুযায়ী অন-রোড প্রাইজ ৪.৭৫ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পৌঁছতে পারে।

Renualt Kwid

এই গাড়িতে ০.৮ লিটার এবং ১ লিটার পেট্রোল ইঞ্জিনের বিকল্প রয়েছে। ০.৮ লিটার মোটরে শুধু ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশনই পাওয়া যায়। কিন্তু ১ লিটার ইঞ্জিনের সাথে ৫ স্পিড ম্যানুয়াল অথবা ৫ স্পিড অটোমেটিক ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশনের বিকল্প বেছে নিতে পারেন। গাড়িটির মাইলেজ ১ লিটার তেলে প্রায় ২৪ কিলোমিটার। Renault Kwid Easy-R গাড়ির এক্স-শোরুম মূল্য ৫.০৯ লক্ষ টাকা থেকে শুরু।

Maruti Suzuki S-Presso AGS

মারুতির এই ভ্যারিয়েন্টে রয়েছে ১ লিটার তিন সিলিন্ডার পেট্রোল ইঞ্জিন। এর সাথে একটি ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন অথবা মারুতির AGS অর্থাৎ অটো গিয়ার শিফটের বিকল্প পেতে পারেন। Maruti Suzuki S-Presso অটোমেটিক তিনটি ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে। যা হল VXI, VXI + এবং VXI (O)। VXI অটোমেটিক ভ্যারিয়েন্টের দাম শুরু ৫.০৫ লক্ষ টাকা থেকে (এক্স-শোরুম)।

Maruti Suzuki WagonR AGS

এটিতেও রয়েছে অটো গিয়ার শিফট অপশন। তবে এটির ইঞ্জিন S-Presso এর তুলনায় বেশি শক্তিশালী। এই গাড়িতে ১ লিটার K12B এবং ১.২ লিটার K12M ইঞ্জিনের বিকল্প রয়েছে। উভয় ইঞ্জিনের সাথেই পেয়ে যাবেন ৫ স্পিড অটোমেটিক ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন। এই গাড়িটির বেস ভ্যারিয়েন্ট অর্থাৎ ১ লিটার ইঞ্জিনের দাম শুরু ৬.৩৬ লক্ষ টাকা থেকে। এবং ১.২ লিটার ইঞ্জিনের দাম ৬.৯৮ লক্ষ টাকা থেকে ৭.১০ লক্ষ টাকার মধ্যে রয়েছে।

Categories