Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ঝাঁটা হাতে মন্দির পরিষ্কার করছেন রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু! কিন্তু কেন?

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

বিজেপির রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসাবে দ্রৌপদীর মুর্মুর নাম নিঃসন্দেহে এক বড় চমক। তিনি জিতলে অবশ্যই তা বিজেপির পায়ের নীচের জমিকে আরও অনেক শক্ত করবে। নাম ঘোষণার পরেই ঝাঁটা হাতে মন্দির সাফ করলেন দ্রৌপদী। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ভিডিও সামনে বড় চ্যালেঞ্জ। তাই মন্দিরে পুজো দিয়েই নিজের যাত্রা শুরু করলেন ঝাড়খণ্ডের নেত্রী। তবে শুধু পুজো দেওয়াই নয়, ঝাঁটা হাতে মন্দির চত্বর সাফাই করতেও দেখা গেল রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীকে। আর তাই এই কাজ এক নিমেষে ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

আজ, বুধবার তিনি পৌঁছে গিয়েছিলেন ময়ূরভঞ্জের রায়রাংপুরের জগন্নাথ মন্দিরে। সেখানে পুজো দেওয়ার পর চলে যান শিব মন্দিরে। সেই মন্দির চত্বরেই হাতে তুলে নেন ঝাঁটা। একেবারের বাড়ির সাধারণ মেয়ের মতোই কাজ করেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়েছে সেই মুহূর্তের ভিডিও। নেটিজেনদের প্রশংসাও কুড়িয়েছে আদিবাসী নেত্রীর সারল্য। দ্রৌপদী মুর্মুর কাছে দেশের প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি হওয়ার সুযোগ রয়েছে। ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন রাজ্যপাল দিল্লি রওনা হওয়ার আগে উড়িষ্যায় তাঁর নিজের শহর ময়ুরভঞ্জ জেলার রায়রাংপুর এলাকার বেশ কয়েকটি মন্দিরে প্রার্থনা করতে গিয়েছিলেন।

এদিন রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর সঙ্গে তাঁর বেশ কয়েকজন ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।৬৪ বছর বয়সী দ্রৌপদী বুধবার রায়রাংপুরের ভগবান জগন্নাথ, হনুমান এবং শিবমন্দিরের পুজো দিতে গিয়েছিলেন। ২০০০ সালে রায়রাংপুর থেকেই প্রথমবারের জন্য বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন দ্রৌপদী । পুরানদেশ্বরী শিব মন্দিরে পুজো দেওয়ার আগে ঝাঁটা হাতে মন্দির প্রাঙ্গন পরিষ্কার করতে দেখা গিয়েছে দ্রৌপদী মুর্মুকে। আগামী দিনে তিনিই দেশের দ্বিতীয় মহিলা রাষ্ট্রপতি হবেন কি না, তার উত্তর দেবে সময়। কিন্তু এই পদে প্রার্থী হিসেবে তার নাম ঘোষণার পরও যে মাটির প্রতি একইরকম টান রয়েছে, তা বুঝিয়ে দিলেন দ্রৌপদী মুর্মু । ইতিমধ্যেই জেড প্লাস নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে তাকে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories