Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বড় খবর: হাজরা মোড় থেকে করুণাময়ী, চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

আজ ফের শহর কলকাতায় চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভের জেরে উত্তেজনা সৃষ্টি হল সল্টলেকের করুণাময়ীতে। ২০১৪ সালে উত্তীর্ণ নট ইনক্লুডেড চাকরিপ্রার্থীরা হাজরা মোড় থেকে তাদের বিক্ষোভ মিছিল শুরু করবেন বলে পরিকল্পনা করেছিলেন। যে কারণে করুণাময়ী মেট্রো স্টেশনের কাছে তাঁরা জমায়েত করতে শুরু করেন। তবে বিক্ষোভ শুরু করার আগেই রীতিমত জমায়েত ছত্রভঙ্গ করতে সেখানে এসে উপস্থিত হয় পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তি বাঁধে পুলিশের। তাদেরকে টেনে-হিঁচড়ে দিয়ে তোলা হয় প্রিজন ভ্যানে। যার ফলে বর্তমানে সেখানকার পরিস্থিতি অত্যন্ত উত্তপ্ত বলে খবর।

২০১৪ সালে টেট পাস করা পরীক্ষার্থীরা এপিসি ভবন একটি ডেপুটেশন জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। যে কারণে তাঁরা করুণাময়ীর কাছে একত্রিত হতে শুরু করেন। তবে তাদের ডেপুটেশন দেওয়ার আগেই বিধান নগর থানার পুলিশ আটক করে বিক্ষোভকারীদের। এই পরিস্থিতিতে রীতিমত পুলিশের সঙ্গে খন্ডযুদ্ধ বাঁধে বিক্ষোভকারীদের । রাস্তার উপরেই মাটিতে শুয়ে পড়েন বিক্ষোভকারীরা কিন্তু তার পরেও তাঁদেরকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয় বিধান নগর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, যারা সাদা খাতা জমা দিয়েছিলেন বর্তমানে তাঁরা চাকরিরত কিন্তু ২০১৪ সালের টেট পরীক্ষা দিয়ে যারা পাশ করেছেন তাঁরা এখনও পর্যন্ত চাকরি পাননি । তাদেরকে নিয়োগের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল কিন্তু সেই নিয়োগ নিয়ে কোনো তৎপরতা দেখা যায়নি। যার ফলে এদিন তাঁরা এপিসি ভবনের সামনে একটি বিক্ষোভ কর্মসূচি করবেন এবং ডেপুটেশন জমা দেবেন বলে ঠিক করেছিলেন। কিন্তু করুণাময়ী মেট্রো স্টেশনের বাইরে পুলিশ তাদের পাকড়াও করে।

এর আগেও একাধিকবার চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভের জেরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে করুণাময়ী। যার কারণে এদিনের বিক্ষোভ কর্মসূচির খবর ছিল বিধান নগর পুলিশের কাছে। তাই আগে থেকেই করুণাময়ী মেট্রো স্টেশনের বাইরে একাধিক পুলিশ মোতায়েন করা ছিল। অন্যদিকে হাজার মোড়ে বিক্ষোভ দেখা যায় চাকরিপ্রার্থীদের । তাঁরা সেখানে জমায়েত করেন এবং সেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির উদ্দেশ্যে মিছিল শুরু করেন । আর সেই সময় পুলিশ তাদেরকে আটক করে। বিক্ষোভকারী প্রত্যেককে পুলিশ লালবাজারের উদ্দেশ্য নিয়ে যায় বলে খবর । যদিও বর্তমানে হাজার মোড়ের পরিস্থিতি পূর্বের তুলনায় শান্ত হয়েছে।

Categories