Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Garfa: সম্পত্তিগত বিবাদের জেরেই কি জোড়া মৃত্যু? সঙ্গীকে খুন করে আত্মঘাতী ফ্ল্যাট মালিক

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

গড়ফায় দুটি অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে বর্তমানে উঠছে একাধিক প্রশ্ন । একটি ফ্ল্যাট থেকে মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় গতকাল । অন্যদিকে বালিগঞ্জ- ঢাকুরিয়ার মাঝে রেল লাইনের ধার থেকে উদ্ধার করা হয় এক ব্যক্তির মৃতদেহ ।পুলিশ তদন্ত করে জানতে পারেন যে ওই মহিলার মৃতদেহ যে ফ্ল্যাটে পাওয়া গিয়েছিল সেই ফ্ল্যাটটি ওই মৃতব্যক্তির। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে ওই মহিলাকে এবং আত্মঘাতী হয়েছেন ফ্ল্যাট মালিক। বর্তমানে এই ঘটনার তদন্ত চালাচ্ছেন তাঁরা।

জানা যায় , মৃত ওই ব্যক্তির নাম গোবর্ধন শেঠ এবং ওই মহিলার নাম শান্তি সিংহ । পুলিশ সূত্রে খবর, শান্তি দেবী গোবর্ধন বাবুর দীর্ঘদিনের পরিচিত ছিলেন। ওই ফ্ল্যাট কেনার পর শান্তিদেবী নিয়মিত যাওয়া আসা করতেন সেখানে। শান্তি দেবীর বোন মুন্নি সিংহ জানান, গোবর্ধন বাবু মঙ্গলবার তাকে ফোন করে জানান যে, সে তাঁর দিদিকে শ্বাসরোধ করে খুন করেছে। তা জানার পরেই তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় শান্তিদেবের বোন। খবর দেওয়া হয় গড়ফা থানায়। অন্যদিকে একই দিনে মুন্নি সিংহের কাছে ফোন আসে রেল পুলিশ এর তরফ থেকে। জানানো হয় যে গোবর্ধন বাবুর মৃত্যু হয়েছে।

গোবর্ধন বাবুর মোবাইল ফোন থেকেই মুন্নিকে ফোন করা হয়েছিল বলে জানান তিনি। বালিগঞ্জ-ঢাকুরিয়ার মাঝে রেল লাইনের ধার থেকে গোবর্ধন শেঠের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ এই ঘটনায় প্রাথমিক তদন্ত করার পর জানতে পারে যে , সম্পত্তিগত বিবাদ ছিল শান্তিদেবী এবং গোবর্ধন বাবুর মধ্যে । বেশ কিছুদিন ধরেই দুজনের মধ্যে সম্পত্তি নিয়ে মনোমালিন্য চলছিল। তবে সেই বিবাদ থেকেই কি খুন করা হয়েছে শান্তি দেবী কে ? এই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। এছাড়াও এই ঘটনায় আরও একটি বড় প্রশ্ন চিহ্ন হল যদি গোবর্ধন বাবু নিজে শান্তিদেবীকে খুন করে থাকেন তাহলে তিনি পরিবারের সদস্যদের কেন সে কথা জানাবেন? আর তারপর কেন আত্মঘাতী হওয়ার সিদ্ধান্ত নেবেন ? আদৌ এই ঘটনার নেপথ্যে কোন সম্পত্তিগত বিবাদ রয়েছে নাকি রয়েছে অন্য কোনো কারণ, তা জানতেই তদন্ত করছে গড়ফা থানার পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories