Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Elon Musk : ‘আমি ডোজকয়েনকে সমর্থন করে যাবো’, ইলন মাস্কের ট্যুইট ঘিরে জোর জল্পনা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

গত কয়েকদিনে ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজারে ভয়াবহ ধস দেখেছেন বিনিয়োগকারীরা। ২০ হাজারের নিচে ঘোরা ফেরা করছে বিটকয়েন। অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সিরও প্রায় একই অবস্থা। তবে এর মাঝে এক অদ্ভুত ট্যুইট করে বসলেন ইলন মাস্ক। টেসলার কর্ণধার এদিন জানালেন, “তিনি ডোজকয়েনকে সমর্থন করে যাবেন”। মাস্কের এমন ট্যুইটের পরই জল্পনা শুরু হয়েছে নেটমাধ্যমে।

শুধু তাই নয়, ডোজকয়েনকে (Dogecoin) সমর্থন করা নিয়ে এই ট্যুইটের পরই উক্ত ক্রিপ্টোকারেন্সির মূল্য প্রায় ১৩ শতাংশ বেড়ে যায় কয়েক ঘন্টায়। ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ বাইন্যান্স (Binance) এ এই ডিজিটাল কারেন্সি ০.০৫ মার্কিন ডলারে ট্রেড করতে থাকে। ট্রেডিংয়ের ভলিউমও বাড়ে হু হু করে। আর তার জেরেই ইলন মাস্কের বিরুদ্ধে একাধিক প্রশ্ন তুলছেন ক্রিপ্টো বিশেষজ্ঞরা।

যদিও এ ঘটনা প্রথমবার নয়। এর আগেও তাঁর করা ট্যুইটে ব্যাপক শোরগোল ফেলেছিল ক্রিপ্টো দুনিয়ায়। অনেকের অভিযোগ, তাঁর বিভিন্ন ইঙ্গিতপূর্ণ ট্যুইটের ফলে বিভিন্ন ক্রিপ্টোকারেন্সিতে ওঠানাম লক্ষ্য করা গিয়েছে বিগত সময়ে। এ ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

ইলন মাস্ক জানিয়েছেন, ডোজকয়েনের মাধ্যমে টেসলার বিভিন্ন পরিষেবা উপভোগ করতে পারবেন ক্রেতারা। টেসলা তার অনলাইন স্টোরে ডোজ কয়েন গ্রহণ করার কথা জানিয়েছে। আরও একটি গুজব উঠেছে, যানবাহনের জন্য অর্থপ্রদানের একটি মাধ্যম হিসাবে এই ক্রিপ্টোকে গ্রহণ করেছে টেসলা।

এর পাশাপাশি তিনি এও বলেছেন, তিনি এটি কিনে যাবেন। আসলে বরাবরই ডোজকয়েন সম্পর্কে আশাবাদী তিনি। ট্যুইটারে ব্যবহারকারীদের প্রশ্নে মাঝে মধ্যেই ডোজকয়েনের সমর্থনে মন্তব্য করে থাকেন তিনি।

অন্যদিকে গত সপ্তাহে ইলন মাস্কের বিরুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ল স্যুট দায়ের হয়েছে। একজন ডোজকয়েন বিনিয়োগকারী, ইলন মাস্ক, স্পেসএক্স এবং টেসলার বিরুদ্ধে ডোজকয়েনের দাম বাড়ানোর জন্য একটি অবৈধ র‌্যাকেটিয়ারিং এন্টারপ্রাইজ চালানোর অভিযোগ তুলেছেন। প্রায় ২৫৮ বিলিয়ন ডলারের অর্থ তছরূপের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। অভিযোগকারী বলেন, তাঁর ট্যুইটের ফলে এই ক্রিপ্টোকারেন্সির ভলিউমে অস্বাভাবিক ওঠা নামা হয়, যার ফলে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়ছে বিনিয়োগকারীরা।

Categories