Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

গলছে বরফ, মহা সমস্যায় পর্বতারোহীরা ! এভারেস্টে বেস ক্যাম্প নিয়ে চিন্তায় নেপাল

।। প্রথম কলকাতা ।।

সাম্প্রতিক সময়ে একটি বড়সড় বৈশ্বিক সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে দূষণ । অপরদিকে বিশ্ব উষ্ণায়ন বিশ্ববাসীর কাছে বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে । যার কারণে ইতিমধ্যেই গলতে শুরু করেছে বরফ। একের পর এক দেখা দিচ্ছে প্রাকৃতিক দুর্যোগ , বাড়ছে জলস্তর। যার কারণে বন্যার প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এবার হিমবাহ গলনের কারণে নেপাল সিদ্ধান্ত নিয়েছে এভারেস্ট থেকে বেস ক্যাম্প নামিয়ে নেবে।

ইতিমধ্যেই বেসক্যাম্প স্থানান্তরের জোরদার প্রস্তুতি চলছে, দফায় দফায় চলছে আলোচনা। নেপাল তাদের বেসক্যাম্প বর্তমান জায়গা থেকে প্রায় ২০০ থেকে ৪০০ মিটার নিচে নামিয়ে আনতে পারে যেখানে সারা বছর তুষারপাত হবে না। আসলে বৈশ্বিক উষ্ণতার কারণে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে হিমবাহ। ক্রমাগত বরফ গলায় প্রতিমুহূর্তে পর্বতারোহীরা আতঙ্কে থাকেন। ঘুমানোর সময় বরফ ধসের আশঙ্কা তৈরি হয়। নেপালের বেস ক্যাম্প রয়েছে প্রায় ৫৩৬৪ মিটার উচ্চতায়।

ভবিষ্যতে খুব সুখকর দিন আসতে আসছে না, সে বিষয়ে বারংবার সতর্ক করেছে বৈজ্ঞানিক মহল থেকে শুরু করে গবেষক মহল। ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ইন্টিগ্রেটেড মাউন্টেন ডেভেলপমেন্টের তথ্য অনুযায়ী এভারেস্টের বরফ গলতে শুরু করেছিল ১৯৯০ এর দশকের শেষের দিকে। সাউথ কোল হিমবাহ রয়েছে প্রায় ৮০২০মিটার উচ্চতায়। সেখানে গড়ে প্রতি বছর প্রায় ২ মিটার পুরু বরফ গলতে শুরু করেছে। এর পুরুত্ব গত ২৫ বছরে কমে গিয়েছে প্রায় ১৮০ ফুট। যার কারণে তুষারের আস্তরণ সরে বেরিয়ে এসেছে কালচে শক্ত বরফ।

বরফ গলনের এই সমস্যার কারণে খুম্বু হিমবাহের উপর অবস্থিত নেপালের বেস ক্যাম্প সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে নেপালের পর্যটন বিভাগের একটি আনুষ্ঠানিক বৈঠকে। শুধু তাই নয়, নেপাল সরকার পর্বতারোহীদের নিয়ে বেশ চিন্তিত। নেপালের গবেষকরা আশঙ্কা করছেন মাউন্ট এভারেস্টের শীর্ষের হিমবাহটি চলতি শতাব্দীর মাঝামাঝি সময় সম্পূর্ণ গলে যেতে পারে। বিশ্ব উষ্ণায়নের কারণে এভারেস্টের প্রায় ২ হাজার বছরের পুরনো বরফের স্তর দ্রুত হারে গলে যাচ্ছে। আপাতত প্রস্তুতি চলছে, ২০২৪ সাল নাগাদ নেপাল এভারেস্ট থেকে তাদের বেসক্যাম্পে নামিয়ে নেবে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories