Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ইউটিউবারদের অত্যাচারের ব্যবসা উঠল লাটে, প্রচারের গেরোয় পড়ে অসুস্থ কাঁচা সবজিমাখা কাকু!

।।  প্রথম কলকাতা ।।

কী বিচিত্র এ দেশ। সত্যিই ভারতবর্ষের মতো দেশেই রয়েছে, জাতি, ধর্ম, পোশাক থেকে শুরু করে খাওয়া দাওয়ায় বৈচিত্রের ছোঁয়া। তেমনই কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল কাঁছা সবজি মাখা। বলাই বাহুল্য আদিম যুগে ফিরে গিয়েছিলেন হাবড়ার মানুষজন। কাঁচা সবজি খেতে শুরু করে দিয়েছিলেন তাঁরা। আর এর নেপথ্যের কারিগর উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ার ব্যবসায়ী বুলন ওরফে রবীনকাকু।

লাউ, পটল, ঝিঙে, কাঁচকলা, পেপে, ঢ্যাড়স, চালতা, এমনকি ডাবের ছাল সহ কাঁচা সবজি মেখে দিতেন। আর তাই রীতিমতো চেটে পুটে খেত গ্রাহকরা। কাঁচা সজবি মেখে ভালো রোজগারও হচ্ছিল তাঁর। কিন্তু, সেই ‘কাঁচামাখা’ বুলনকাকুই ইদানিং পাগল হতে বসেছেন। সৌজন্যে ইউটিউবারদের উপচে পড়া ভিড়। খ্যাতির বিড়ম্বনায় পড়ে আজ তাঁর ব্যবসা বন্ধ, এমনকি তিনি নিজেও চরম অসুস্থ শয্যাশায়ী। হাত জোর করে সকলের কাছে অনুরোধ করছেন, “দয়া করে আর কেউ কোনও ভিডিও বানাতে আসবেন না। এর পরেও কেউ বিরক্ত করলে প্রশাসনের দ্বারস্থ হতে বাধ্য হব”।

কিন্তু কী এমন হল যার কারণে ব্যবসা বন্ধ করতে হলো? হাবড়ার ভাইরাল কাঁচা সবজি মাখা কাকুর। বুলন ওরফে রবীনকাকুর দাবি, ‘প্রথম দিকে ইউটিউবারদের আসা এবং তাঁদের দরুন আমার জনপ্রিয়তা বাড়া বেশ মজা ভালো লাগছিলো। ভাইরাল হওয়ার পর ক্রমেই দোকানে ক্রেতাদের ভীড় বাড়ছিলো। তবে একটা সময় এই ভীড়ই দোকানের সামনে চরম বিশৃঙ্খলা তৈরি করে। চারদিক থেকে ক্যামেরা লাগিয়ে নানান কথার মাধ্যমে আমাকে নানান ভাবে উত্তক্ত করার চেষ্টা করে ইউটিউবাররা। আমি কোন ভালো কথা বললেও আমাকে খারাপ বলে তারা পয়সা রোজগারের চেষ্টা করছে। একই সাথে তাঁর দাবি, ফেমাস করানোর লোভ দেখিয়ে জোর করে আমার কাছ থেকে ঘাস, কচি বাঁশ, গোলাপ ফুলের পাঁপড়ি, রজনীগন্ধা মেখে দেওয়ার অনুরোধ করেন। আর এসব করতে গিয়েই বিপত্তি।’

একই সাথে মাখা কাকুর অভিযোগ, ‘লোভ দেখিয়ে ভিডিও বানিয়ে রং চড়িয়ে নিজেদের আখের গুছিয়েছে এই ইউটিউবাররা। আর এই নেগেটিভ প্রচারের ফাঁদে পা দিতে গিয়েই বিপদে পড়েছেন তিনি। যে স্কুলের সামনে বসতেন সেখানেও স্কুলের সামনে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়। দুপক্ষের মধ্যে হাতাহাতিতে জখম হন এক শিক্ষক। আর এসবের জেরে নানান কটূক্তি শুনতে হয়েছে তাঁকে। যার কারণে মানসিক যন্ত্রনা থেকে অসুস্থ হয়ে পরেন তিনি। আপাতত একটু শান্তি চান হাবড়ার রবীন ঘোষ। আর ভাইরাল হতে চান না তিনি।’

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories