Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Sealdah: ধারালো অস্ত্রের এলোপাথাড়ি কোপ দাদাকে! হামলা দিদির ওপরেও, গ্রেফতার ছোট ভাই

।। প্রথম কলকাতা।।

রবিবার শিয়ালদায় এক নৃশংস ঘটনার সাক্ষী রইল খাসনবিশ পরিবার। দাদার উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হল ছোট ভাই ।এলোপাথাড়ি কোপ বসালো দাদার দুই হাতে। এমনকি দিদিকেও মারধর করার অভিযোগ ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে । এই ঘটনায় রীতিমত থমথমে শিয়ালদার ডিমপট্টি এলাকা । স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুই ভাইয়ের বচসার জেরে এই ঘটনা ঘটেছে। সম্পত্তি সংক্রান্ত কোন বিষয়কে কেন্দ্র করে দুই ভাইয়ের মধ্যে বচসা চলছিল আর তারপরেই দাদাকে পরিকল্পনা করে খুন করার চেষ্টা করে ছোট ভাই। সেই মতই বাড়িতে ধারালো অস্ত্র জোগাড় করে রেখেছিল সে।

পুলিশ এবং পরিবার সূত্রে খবর, শিয়ালদার ডিমপট্টি এলাকার বাসিন্দা অনির্বাণ খাসনবিশ এবং তাঁর ভাই সায়ন খাসনবিশ। বেশ কিছুদিন ধরে দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পত্তি নিয়ে অশান্তি চলছিল । ছোট ভাইয়ের দাবি ছিল, তাকে সমস্ত সম্পত্তি লিখে দিতে হবে । যার জন্য মাঝেমধ্যেই সে তাঁর বাবাকে মারধর করত বলেও জানা যায় । আর এদিন বছর চৌত্রিশের অনির্বাণের বিয়ের জন্য পাত্রী দেখতে যাবার কথা ছিল। পেশায় তিনি একজন গ্রামীণ ব্যাঙ্কের কর্মী । পাত্রী দেখতে যাবেন বলে এদিন সকাল দশটা নাগাদ বাড়িতে এসে উপস্থিত হয়েছিলেন তাঁদের দিদি।

তবে আচমকাই সকালে অনির্বাণ যখন দোতালায় ছিলেন তখন তাঁর ছোট ভাই তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। রীতিমত রক্তে ভেসে যায় ঘর। চিৎকার চেঁচামেচি শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। এক প্রতিবেশীর কথায়, তিনি যখন চিৎকার চেঁচামেচি শুনে তাদের বাড়িতে ছুটে যান তখন দেখেন ছোট ভাই ওই ধারালো অস্ত্রের কোপ বসাচ্ছে অনির্বাণের শরীরে। একটি বড় দা তাঁর হাতে থাকায় ঘাবড়ে যান প্রতিবেশীরাও। অবশেষে কোনরকমে তাঁর হাত থেকে ধারালো অস্ত্র ফেলে তাকে আটকানো হয়। খবর দেওয়া হয় মুচিপাড়া থানায়।

এই ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছেন অনির্বাণ । তাকে ভর্তি করা হয়েছে এনআরএস হাসপাতালে। আপাতত সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। অন্যদিকে এদিন তাঁর দিদিকেও মারধর করে সায়ন। মুচিপাড়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হলে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় অভিযুক্তকে। অনির্বাণের দিদি জানান, ছোট ভাই কোন পেশার সঙ্গে যুক্ত নয় । দীর্ঘদিন ধরে তাঁর সঙ্গে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের ঝামেলা অশান্তি চলছে । কারণ তাঁর দাবি সম্পূর্ণ সম্পত্তি তাঁর নামে লিখে দিতে হবে । এই নিয়ে বেশ কয়েকবার সে তাঁর বাবাকেও মারধর করেছে বলে অভিযোগ।আর আজ এমন নৃশংস ঘটনা ঘটায় সে। বর্তমানে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে পরিবারের সদস্যসহ প্রতিবেশীদের ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories