Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

প্রিয় ঊর্মি-সাত্যকির সাথে দেখা করতে চান? লাগবেনা কোনও অনুমতি, সাফ জানালেন অভিনেত্রী অন্বেষা

1 min read

।।  প্রথম কলকাতা ।।

ধারাবাহিক দিয়ে অভিনয়ে হাতেখড়ি বর্ধমানের অন্বেষা হাজরার। ভাবছেন কে এই অন্বেষা? আসলে তাঁর আসল নামের থেকে বেশি জনপ্রিয় ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’-এর ‘ঊর্মি’ নামটা। বর্তমানে তাঁর এই নামের জনপ্রিয়তা আকাশ ছোঁয়া। প্রিয় ধারাবাহিকের অভিনেত্রীর সাথে দেখা করতে প্রতিনিয়ত স্টুডিওর বাইরে ভীড় জমান অসংখ্য অনুরাগীরা। হাজারো অনুরোধ করেও মেলেনা ভেতরে যাওয়ার অনুমতি।

তবে এসব কোনও নিয়মে নেই। যে অনুমুতি পত্র ছাড়া ভেতরে প্রবেশ করা নিষেধ। তা সত্ত্বেও গেটে থাকা গেটকিপাররা ঢুকতে না দেওয়ার বেশ কিছুদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিচ্ছিলেন ঊর্মির অনুরাগীরা। আর তা চোখে পড়তেই বড়সড় পদক্ষেপ নিলেন অভিনেত্রী।

এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় এই বিষয়ের ওপর একটি বিবৃতি জারি করে অন্বেষা তথা ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিকের ঊর্মি লিখেছেন, “ভারতলক্ষী স্টুডিও তে বেশ কিছু কাজ হয়, তার মধ্যে একটি ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিক। টেলিভিশনে কাজ করার দরুন আমরা আপনাদের কাছে পৌঁছতেও পেরেছি। আপনারা যারা আমাদের সাথে দেখা করতে আসেন আপনরা নিজেরাও হয়তো জানেন না, যে আপনারা প্রত্যেকে আমাদের কাছে কতোটা স্পেশাল। তাই আমাদের পথের সাথে যুক্ত কোনো শিল্পী চান না যে আপনারা দেখা করতে এসে, দেখা না করে চলে যান। তাই এবার থেকে মেইন গেটে কর্মরত সিকিউরিটি দাদাকে বলবেন এই পথের সেটে যাবো। আশা করি আজকের পর কেউ আপনাদের আটকাবেনা।

আমরা সেটের ভেতরে কাজ করি, আমাদের সেট থেকে মেইন গেট অনেক দূরে তাই আমাদের কাছে খবরও আসেনা যে গেট থেকে কে ফিরে যাচ্ছেন। আমাদের “পথের” তরফ থেকে বলাই আছে গেটে কোনো মানুষ কেই যেনো আটকানো না হয়। তারপরও যে এভাবে আপনাদেরকে ফিরে যেতে হয়েছে সেটা শুনে আমরা অত্যন্ত দুঃখিত।” একই সাথে অভিনেত্রী লেখেন, আবারো বলছি আমাদের “এই পথ যদি না শেষ হয়” এর সেটে সব্বাই আসতে পারেন। আমরা কোনো দিন কারোর সাথে দেখা করবো না বলিনি আর আগামী দিনেও বলবো না।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories