Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Behala: ইঞ্জিনিয়ারের অস্বাভাবিক মৃত্যু বেহালায়, পুকুর থেকে ভেসে উঠল নিথর দেহ

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

এক ইঞ্জিনিয়ারের মৃত্যু ঘিরে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে বেহালা পর্ণশ্রী এলাকায় । সেখানে গতকাল রাতে পেশায় ইঞ্জিনিয়ার এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। জানা যায়, রাতের দিকে মৃতদেহটি পুকুরের জলে ভেসে উঠেছিল । পাশের ক্লাবে থাকা সদস্যরা তা দেখতে পান এবং খবর ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায় । তাকে উদ্ধার করা হয় নিয়ে যাওয়া হয় ময়নাতদন্তের জন্য। স্থানীয়দের অনুমান, মানসিক অবসাদে তিনি ভুগছিলেন যার কারণে আত্মঘাতী হয়েছেন তিনি । তবে বর্তমানে এই ঘটনার তদন্ত চলছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মৃত ইঞ্জিনিয়ারের নাম অনুপম রায় চৌধুরী । কয়েক বছর আগে তিনি তাঁর স্ত্রীকে হারিয়েছেন। পেশায় ইঞ্জিনিয়ার হলেও নিজের ব্যবসা শুরু করেছিলেন তিনি। তবে দীর্ঘ দুই বছর লকডাউনের জেরে সে ব্যবসায় মন্দা দেখা দেয়। পাওনা টাকা আদায় করতে পারছিলেন না তিনি এবং নিজের যেখানে ধার ছিল সেই টাকা শোধ করার মত ক্ষমতাও ছিল না তাঁর। যার কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন । তাঁর এক প্রতিবেশী জানান , দিন দশেক আগে তিনি নিজের হাত কেটে আত্মহত্যা করতে চেয়ে ছিলেন কিন্তু প্রতিবেশীদের তৎপরতায় সেই যাত্রায় প্রাণ বাঁচে তাঁর।

এমন ঘটনা তিনি কেন ঘটালেন এই প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি । আর তারপর গতকাল রাতে তাঁর বাড়ির কাছে একটি পুকুর থেকে মৃতদেহ ভেসে ওঠে তাঁর। বছর ৫৫-এর অনুপম রায়চৌধুরী স্ত্রীর মৃত্যুর পর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। তার উপরে ব্যবসায় ক্ষতি এবং দীর্ঘ দু’বছর লকডাউনের জেরে আর্থিক মন্দা চারিদিক থেকে ঘিরে ফেলে ছিল তাকে। স্থানীয়দের অনুমান সেই কারণেই হয়ত আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন তিনি। তবে আদৌ তিনি আত্মহত্যা করেছেন নাকি তাকে খুন করে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে সেই নিয়ে এখনও পর্যন্ত রয়ে গিয়েছে প্রশ্ন । ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে আসলে বিষয়টি আরও পরিস্কার হবে বলে মনে করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য , গতকাল কসবায় এক ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া আত্মহত্যা করেন। সামনে পরীক্ষা থাকায় তাঁর মা তাকে ক্রিকেট খেলতে যেতে দেননি । যার ফলে বাড়িতে অশান্তি হয় এবং কিছু সময় পরে ঘর থেকে উদ্ধার করা হয় ওই পড়ুয়ার ঝুলন্ত মৃতদেহ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories