Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Kolkata: সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ছিনতাইয়ের ঘটনার কিনারা, পুলিশের হাতে গ্রেফতার অভিযুক্ত

।। প্রথম কলকাতা।।

বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই সল্টলেকের বিধান নগর উত্তর থানার অন্তর্গত বিভিন্ন এলাকায় মোবাইলফোন, গলার চেন , ব্যাগ এবং অন্যান্য বিভিন্ন জিনিস ছিনতাইয়ের ঘটনা প্রকাশ্যে আসছিল। অভিযোগ জানানো হয়েছিল পুলিশের কাছে। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করতেই বিধান নগর উত্তর থানার পুলিশের হাতে গ্রেফতার এক অভিযুক্ত। সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্ত যুবককে শনাক্ত করা হয় । আর তারপর গতকাল তাকে সল্টলেকের এক নম্বর গেটের কাছে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে গ্রেফতার করে বিধান নগর উত্তর থানার পুলিশ। তাকে আজ আদালতে তোলার পর পুলিশি হেফাজতে রাখার আবেদন জানানো হবে বলে খবর।

শহর কলকাতায় বর্তমানে ছিনতাইয়ের পরিমাণ অত্যন্ত বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরেই বিধান নগর থানায় একাধিক ছিনতাইয়ের অভিযোগ এসে পৌঁছে ছিল। এরপরেই পুলিশ বিধান নগর ট্রাফিকের বিভিন্ন সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখেন্ । তাঁরা দেখতে পান যে একটি স্কুটিতে করে দুই যুবক সন্দেহজনকভাবে এলাকা ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। যে সময়ে ওই দিন সল্টলেকের এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে সেই সময়ের মধ্যেই ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল, যা সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে । এরপর সন্দেহ হয় পুলিশের । পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেন।

তা পাঠানো হয় বিধান নগর সংলগ্ন বিভিন্ন থানা, ট্রাফিক গার্ড এবং কলকাতা পুলিশের ট্রাফিক গার্ডে। এরপর গতকাল রাতে পুলিশের কাছে খবর আসে যে ওই দুই যুবকের মধ্যে একজন সল্টলেকের এক নম্বর গেটের কাছে দাঁড়িয়ে রয়েছে । খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয় বিধান নগর উত্তর থানার পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত ওই যুবককে । জানা যায় তাঁর নাম প্রবীর হালদার । পুলিশি জেরার মুখে সে স্বীকার করে যে, নিউটাউন, সল্টলেক সহ বিভিন্ন এলাকায় স্কুটি নিয়ে সে এবং তাঁর সঙ্গী ছিনতাইয়ের কাজ করে । দুজনেই মানিকতলার বাসিন্দা বলে জানা যায় কিন্তু এখনও পর্যন্ত ওপর জনকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

তবে ছিনতাই কেন জিনিসপত্র এখনই ফেরত পাওয়া যায়নি । এমনটাই খবর পুলিশ সূত্রে। রবিবার তাকে আদালতে পেশ করে পুলিশি হেফাজতে রাখার আবেদন জানাবেন পুলিশ আধিকারিকরা । অন্যদিকে তাদের এই ছিনতাইয়ের ঘটনার সঙ্গে আরও কারা কারা জড়িত রয়েছে সে বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পেতে তল্লাশি চালাচ্ছে বিধান নগর থানার পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories