Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Pashchim Medinipur: আবাস যোজনার ঘর দেওয়ার নামে টাকা আদায়! কাটমানির অভিযোগে বিদ্ধ শাসক দল

।। প্রথম কলকাতা।।

নির্বাচনের আগে স্থানীয়দেরকে আবাস যোজনায় ঘর পালিয়ে দেবার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল । কিন্তু তাদের কাছ থেকে নেওয়া হয়েছিল কাটমানি। এই ঘটনায় দীর্ঘদিন পেরিয়ে যাবার পরেও এখনও পর্যন্ত আবাস যোজনার ঘর তৈরি হয়নি সেই সকল স্থানীয় বাসিন্দাদের । বর্তমানে তাঁরা কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতাকে । ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের ২১ নম্বর ওয়ার্ডে। ওই ওয়ার্ডের উপভোক্তাদের অভিযোগ, স্থানীয় তৃণমূল নেতা তাদেরকে ঘর পাইয়ে দেবার আশ্বাস দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ।

অভিযোগ ওঠে , ২১ নম্বর ওয়ার্ডের স্থানীয় তৃণমূল নেতা দুর্জয় গোস্বামী নির্বাচনের সময় ওয়ার্ডের বিভিন্ন বাসিন্দাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে তাদেরকে আবাস যোজনায় বাড়ি পাইয়ে দেবেন। তার জন্য কাগজপত্র তৈরি করে রাখতে বলেছিলেন তবে তার আগে কিছু টাকা দিতে হবে বলে জানিয়েছিলেন। সেইমতো স্থানীয় বেশকিছু বাসিন্দা তার হাতে ৫০০ টাকা করে তুলে দেয় । কিন্তু আজ পর্যন্ত বাড়ি তৈরির কাজ শুরু হয়নি । যদিও এই অভিযোগ একেবারেই ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন ওই তৃণমূল নেতা।

তাঁর দাবি, এইভাবে অপপ্রচার করা হচ্ছে বরং এলাকার সাধারণ লোকজনের জন্য যে কাজকর্ম করা হচ্ছে তাতে বাধা দিচ্ছেন কংগ্রেস কাউন্সিলর । তৃণমূল নেতার এই পাল্টা অভিযোগ আসার পরেই ফের বিরোধীদের তরফ থেকে একাধিক অভিযোগ উঠে এসেছে । মেদিনীপুর পৌরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কংগ্রেস কাউন্সিলর হলেন মহম্মদ সাইফুল । তিনি বলেন, তৃণমূল নেতারা নির্বাচনের আগে এই রকম বহু জায়গা থেকে টাকা তুলেছেন কাজের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেই কাজ হয়নি। তবে যে কাজ তৃণমূল নেতারা অসম্পূর্ণ রেখে দিয়েছেন সেই কাজটি তিনি সম্পন্ন করবেন বলে দাবি করেন।

যদিও এই প্রসঙ্গে মেদিনীপুর পুরসভার তৃণমূল নেতা সৌমেন খান বলেন, এরকম কোনো ঘটনা এখনও পর্যন্ত তাদের কানে আসে নি। যদি সত্যিই এমন কোনো অভিযোগ থাকে তাহলে অবশ্যই তার তদন্ত হবে। বর্তমানে তৃণমূলের রাজ্য নেতৃত্বের তরফ থেকে একাধিকবার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে কাটমানি এবং দুর্নীতি বন্ধ করার জন্য । অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কর্মীদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দিয়েছিলেন কিন্তু তারপরেও শাসক দল বারবার এই কাটমানির অভিযোগে বিদ্ধ হচ্ছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories