Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আর মুরলীধর সেন লেন নয়, এবার নয়া আস্তানার খোঁজে বিজেপি

।।প্রথম কলকাতা।।

ছেড়ে দেওয়া হতে পারে মুরলীধর সেন লেনের বিজেপির সদর দফতর। বিধানসভা ভোটের সময় হেস্টিংসে আগরওয়াল হাউস ভাড়া নেওয়া হলেও নির্বাচনে মুখ থুবড়ে পড়ার পর সেখানে দলের কাজ সেভাবে না হয়ে যা হয় সব মুরলীধর সেন লেনেই। এবার সেটাও ছেড়ে নয়া আস্তানা খুঁজছে বিজেপি।

উত্তর কলকাতার মুরলীধর সেন লেনের বাড়ির বদলে রাজ্য দফতরের নতুন ঠিকানা চায় বিজেপি। রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর হেস্টিংসের দফতর পুরোপুরি তুলে দেওয়া হবে। উত্তর কলকাতা জেলার কার্যালয়ে পরিণত হবে বর্তমান রাজ্য দফতর। আর রাজ্য দফতর হবে নতুন কোনও ঠিকানায়। বিজেপি সূত্রে খবর, নতুন দফতর নেওয়ার ব্যাপারে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের ছাড়পত্র মিলেছে।

এরপর নয়া আস্তানার খোঁজ শুরু হবে। বিজেপির মত দল বড় হচ্ছে, তাই রাজ্য দফতর বড় হওয়া দরকার।কবে, কোথায়, কী হবে তা এখনও চূড়ান্ত না হলেও ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে ভাবনাচিন্তা।

এখন রাজ্য দফতরের আয়তন অনেকটাই ছোট। বাইরে থেকে অনেক কর্মী আসেন। অনেক ক্ষেত্রেই স্থান সঙ্কুলান হয় না। একেবারে ছোট দুটো ঘরে কাজ চল্র যুব মোর্চা বা মহিলা মোর্চার কাজ। পদাধিকারিদের সঙ্গে যাঁরা দেখা করতে আসেন তাদের অপেক্ষা করার জায়গাও নেই। সব মিলিয়ে খুবই সমস্যা। তাই দফতর বদল খুবই জরুরি।

মুরলীধর সেন লেন আসলে একটা সরু গলি হওয়ায় কেন্দ্রীয় নেতারা কলকাতায় এলেও রাজ্য দফতরে আসতে পারেন না। মে মাসেই এখানে আসার কথা ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। শেষ পর্যন্ত তিনি অন্য কর্মসূচির জন্য আসতে পারেননি। তবে বিজেপি সূত্রে জানা যায়,শাহর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অফিসাররাও রাজ্য দফতরে যাওয়া নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন।

হেস্টিংসে ২ নম্বর সেন্ট জর্জেস গেট রোডে ১০ তলা বাড়ির বেশ কয়েকটি তল ভাড়া নেয় বিজেপি। তার অনেকগুলি ছেড়ে দিলেও এখনও পাঁচ তলায় হলঘরটি রয়েছে। এ ছাড়াও ন’তলায় বিভিন্ন রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতাদের ঘর রয়েছে। তবে ইদানীং সেখানে খুব বেশি কেউ যান না। সুকান্ত মজুমদার সভাপতি হওয়ার পরে সেখানে আলাদা করে নিজের জন্য কোনও ঘরও বানাননি। এখন কোনও বড় বৈঠক হলেই হেস্টিংস অফিসকে বাছা হয়। বিজেপি সূত্রে খবর, নতুন ঠিকানা তৈরি করতে সময় লাগলেও যত তাড়াতাড়ি সম্ভব হেস্টিংসের ভাড়া নেওয়া দু’টি তলাই ছেড়ে দিতে চাইছে দল।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories