Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মানিক ভট্টাচার্যকে কালো পতাকা, গাড়ি ঘেরাও করে গো ব্যাক স্লোগান ABVP-DYFI সমর্থকদের

।। প্রথম কলকাতা।।

সম্প্রতি প্রাথমিকেও শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে । যার ফলে এই ঘটনার তদন্তভার বর্তমানে সিবিআই এর হাতে। ইতিমধ্যেই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি তথা পলাশিপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক মানিক ভট্টাচার্যকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই তদন্তকারী আধিকারিকরা । আর এবার তাঁর গাড়ি ঘিরে গো ব্যাক স্লোগানে উত্তেজনা ছড়াল নদিয়ার তেহট্টোতে শনিবার এস ডি ও অফিসের সামনে। এবিভিপি এবং ডিওয়াইএফআই এর তরফ থেকে এই বিক্ষোভ দেখানো হয় বলে জানা যায়।

এদিন প্রায় বেলা সাড়ে বারোটা নাগাদ মানিক ভট্টাচার্য যখন অফিসে ঢুকছিলেন তখন তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে কালো পতাকা দেখায় এবিভিপি সহ ডিওয়াইএফআইয়ের কর্মীসমর্থকরা । এদিন মানিক ভট্টাচার্য এসডিও অফিসে প্রশাসনিক বৈঠকের জন্য এসেছিলেন। আর তাঁর গাড়িকে লক্ষ্য করে কালোপতাকা দেখানো হয় এবং গো ব্যাক স্লোগান দিতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। যার জেরে পরিস্থিতি অত্যন্ত উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয় তেহট্টো থানার পুলিশ। আটক করা হয় বেশ কয়েক জন বিক্ষোভকারীকে।

তারপর বিক্ষোভকারীরা তেহট্টো থানার সামনেও বিক্ষোভ দেখান বলে জানা যায়। উল্লেখ্য, প্রাথমিকে নিয়োগের ক্ষেত্রে বেনিয়মের অভিযোগ উঠেছে । ২০১৪ সালে প্রাইমারি টেট পরীক্ষা হয় এবং তার ফলাফল প্রকাশিত হয় ২০১৬ সালে। এরপর দ্বিতীয় প্যানেল প্রকাশিত হয় ২০১৭ সালে। সেখানে ২৬৯ জনকে এক নম্বর করে বাড়িয়ে চাকরি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে। যদিও প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের দাবি, প্রশ্নপত্রে ভুল থাকার কারণে ওই এক নম্বর করে বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য আবেদনপত্র জমা দেওয়া হয়েছিল । আর তারপর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ২৬৯ জনের এক নম্বর করে বাড়ানো হয়। পরবর্তীতে জানা যায়, এই সংখ্যাটি ২৬৯ নয়,১ নম্বর করে বাড়ানো হয়েছিল ২৭৩ জনের। বর্তমানে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী সেই ২৬৯ জনকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে, বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তাদের বেতন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories