Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

এবার ‘এক ডাকে অভিষেক’, ডায়মণ্ড হারবার এলাকার জন্য শুরু নয়া কর্মসূচী

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

করোনা কালে সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘ডায়মন্ড হারবার মডেল’ বিপুল সাড়া পেয়েছিল গোটা রাজ্যে। এবার সেই ধাঁচেই ডায়মন্ড হারবার এলাকায় শুরু হতে চলেছে নয়া পরিষেবা। যেখানে এক ফোনেই সাংসদকে অভাব-অভিযোগ জানাতে পারবেন ডায়মন্ড হারবারের বাসিন্দারা। শনিবার এই পরিষেবার উদ্বোধন করতে চলেছেন খোদ সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। 

শনিবার থেকে তাঁর লোকসভা কেন্দ্রের মানুষদের জন্য ওই হেল্পলাইন নম্বর ৭৮৮৭৭৭৮৮৭৭ চালু করছেন অভিষেক। যেকোনও সাহায্যের জন্য ওই হেল্পলাইনে ফোন করে সাহায্য চাওয়া যাবে।

এই হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে তাদের সমস্যার কথা বলতে পারবেন ডায়মন্ডহারবার লোকসভা কেন্দ্রের মানুষজন। জানা যাচ্ছে, অভিযোগ পাওয়ার পরই সঙ্গে সঙ্গে সমাধান করার চেষ্টা করা হবে। পাশাপাশি, নিজেও কথা বলতে পারেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

পরিষেবার নাম ‘এক ডাকে অভিষেক’। অর্থাৎ হাত বাড়ালেই সাংসদকে পাবেন সংশ্লিষ্ট সংসদীয় এলাকার বাসিন্দারা। সাধারণত, ভোটে জেতার পর এলাকায় জনপ্রতিনিধিদের দেখা পাওয়া যায় না বলে অভিযোগ ওঠে। তৃণমূল জমানায় অনেকাংশেই সেই ‘মিথ’ ভেঙেছে। এই পরিষেবা চালু করে অভিষেক কার্যত প্রমাণ করে দিলেন, শুধুমাত্র নির্বাচনী রাজনীতি তিনি করেন না। বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতেই ভালবাসেন এই জননেতা, এমনটাই বলছে তাঁর সংসদীয় এলাকার বাসিন্দারা।  

এনিয়ে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সাধারণ মানুষের কাছাকাছি থাকতে চাইছেন। অর্থাৎ তৃণমূল যে কত নিবিড়ভাবে মানুষের পাশে থাকে তা প্রমাণ হল। বিরোধীদের কথা বলার মুখ নেই। ত্রিপুরায় দিদিকে বলো-কে নকল করে দাদাকে বলো তৈরি করা হয়েছিল। এখন দাদাই বদল হয়ে গিয়েছে।

এই হেল্পলাইন খোলা নিয়ে সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী কটাক্ষ করে বলেছেন, এক ফোনে একলাখ ও দিদিকে বলোকে মিলিয়ে কেউ কিছু নতুন করেছেন বলতেই পারেন। কিন্তু ডায়মন্ডহারবারের চিটফান্ডে যে হাজার হাজার ছেলেমেয়ের লাখ লাখ টাকা লোপাট হয়ে গেল তা তারা ফেরত পাবে তো? উনি বলুন এক ফোনে টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করে দেব। এসব আজেবাজে কথা বলার কোনও মানে হয় নাকি?

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories