Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘নিশ্চিত ভাবে অন্য জায়গায় বোতাম টেপা হয়েছিল’, বিধানসভার ভোটাভুটি নিয়ে মন্তব্য স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

সোমবার অধিবেশন চলাকালীন আচার্য বিল পেশ হয়। সেই বিল নিয়ে ভোটাভুটির দাবি তুলেছিল বিজেপি। তারপর ভোটাভুটিও হয় এবং অধ্যক্ষ যে ফলাফল ঘোষণা করেন, তাতে দেখা যায় ১৮২-৪০ ভোটে বিল পাশ হয়েছে। অর্থাৎ বিরোধীদের ভোট ৪০ টি। ভোট কারচুপি হয়েছে বলে দাবি করেন শুভেন্দু-সহ অনেকেই। এই ভোটের পুনর্গণনা করতে গিয়ে দেখা যায়, গণনায় ভুল।মঙ্গলবার অধিবেশনে ভুল স্বীকার করে নিয়েছেন স্পিকার। তবে আজ বৃহস্পতিবারেও ভোট বিভ্রান্তি নিয়ে মুখ খোলেন অধ্যক্ষ।

যারা আজ বিরোধী দলের ভোট দিলেন তারা অন্য জায়গায় গিয়ে বোতাম টিপেছেন নিশ্চিত ভাবে না হলে এটা হতেই পারে না। তিনি আরও জানান এটা অন্য কারোর ভুল। বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বলেন যে যারা বাইরে গিয়ে বিভিন্ন ধরনের শব্দ এবং বাক্য প্রয়োগ করছেন তাদের আরও সচেতন হওয়া উচিত। এই ধরনের শব্দ অবান্তর অপ্রাসঙ্গিক। বিধানসভার ভোটে জালিয়াতি হয়েছে এই বাক্য নিয়ে ভীষণই ক্ষুব্ধ স্পিকার। কেউ যাতে ভবিষ্যতে আর এই ধরনের কথা না বলেন সেই বিষয়ে আবেদন করেছেন স্পিকার। তবে তার বক্তব্যে স্পষ্ট তিনি যথেষ্ট ক্ষুব্ধ।

স্পিকার মনে করিয়ে দেন যে কোন কথা যে কোন কথা জায়গায় বলা যায় না। যারা পরিষদীয় রীতিনীতি মেনে চলেন তাদের আরও সতর্ক হওয়া উচিত। এদিন তিনি বারংবার সবাইকে সতর্ক হওয়ার নির্দেশ দেন কেউ যেন আর এমন কথা না বলেন।বিজেপির মোশন জমা দেওয়া নিয়েও কথা বলেন স্পিকার। তিনি বলেন যে তিনি বিজেপি বিধায়কদের মোশন জমা দিতে বলেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন যে আদালতে যাওয়ার দরকার নেই।

বিধানসভার বিষয় নিয়ে আদালত কতটা হস্তক্ষেপ করবে তা নিয়ে সন্দিহান ছিলেন তিনি তাই বলেছিলেন যাবতীয় বিষয় বিধানসভাতেই মেটানোর কথা।তিনি এদিন ধন্যবাদ জানান সরকারকে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় যেভাবে তার দলের সবার আস্থা অর্জন করে বিজেপি বিধায়কদের সাসপেনশন প্রত্যাহারের বিষয়ে সম্মতি জানান তা যে ভীষণ ভালো একটি কাজ সেই কথাই জানা ন স্পিকার। তিনি আরও জানান যে তিনি চান সবাই বিধানসভায় আসুক কেউ যেন বাইরে না থাকেন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories