Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Purba Bardhaman:স্ত্রীর বিবাহ-বহির্ভূত সম্প র্কের জের, শিশুপুত্রকে খুন করে আত্মঘাতী’ স্বামী

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

দীর্ঘ ছয়-সাত মাস ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। একাধিকবার স্বামীর সঙ্গে অশান্তি করে নিজের বাপের বাড়িতে চলে আসেন রূপা মজুমদার। অবশেষে গতকাল তাঁর স্বামী তাদের ৭ বছরের শিশু পুত্রকে খুন করে নিজে আত্মঘাতী হন বলে জানা যায়। এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার খণ্ডঘোষ গ্রামে। স্ত্রীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক কিছুতেই মেনে নিতে পারেননি স্বামী। তাই দাম্পত্য জীবন সুখের ছিল না তাদের । কিন্তু স্ত্রী বাপের বাড়ি চলে আসার পরে বহুবার তিনি স্ত্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে যাবার চেষ্টা করেছিলেন তবে তাতে ব্যর্থ হন। অন্যদিকে, স্বামী মানসিক রোগী এই অজুহাত দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বাপের বাড়িতেই থাকছিলেন রূপা।

পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার অতীশ মজুমদারের পরিবার রূপার বাপের বাড়ি অর্থাৎ কুমিরকোলা গ্রামে এসে উপস্থিত হন। তাঁরা বারবার তাকে বাড়িতে ফিরে যাবার অনুরোধ জানান। কিন্তু কোনমতেই রূপা স্বামীর কাছে ফিরে যেতে চাইনি উপরন্তু স্বামী যে মানসিক রোগী তা জানিয়ে পরিবারের সকল সদস্যকে ফিরিয়ে দেন তিনি। এমনকি শ্বশুর বাড়ির লোকজনকে তাদের ছেলেকে মানসিক চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন রূপা। অবশেষে পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে স্ত্রীর এই ধরনের অপবাদ শুনে একেবারে হতবাক হয়ে যান অতীশ।

ঘরে ঢুকে যান তিনি আর তারপর দীর্ঘক্ষন তাঁর নাবালক পুত্রকে নিয়ে বন্ধ ঘরের মধ্যে থাকায় সন্দেহ হয় পরিবারের লোকেদের । অনেক ডাকাডাকির পরও দরজা খোলেন নি তিনি । অবশেষে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতেই দেখা যায় খাটের নিচে পড়ে রয়েছে তাঁর শিশুপুত্রের নিথর দেহ। অন্যদিকে, ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় অতীশের মৃতদেহ । খবর দেওয়া হয় পুলিশকে । ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয় পুলিশ। উদ্ধার করা হয় মৃতদেহগুলিকে। জানা যায় অতীশ এবং রূপা ১২ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। ছেলে মেয়েকে নিয়ে ছয় সাত মাস নিজের বাড়িতেই ছিলেন অতীশ।

এই ঘটনায় অতীশের পরিবারের অভিযোগ , রূপার বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল সেই সম্বন্ধে সবকিছু জানতে অতীশ । তবে তাঁর পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভব হয়নি যে কারণে অতীশকে ছেড়ে বাপের বাড়িতে গিয়ে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রূপা। আর পাড়া-প্রতিবেশী সহ পরিবারের লোককে জানিয়েছিল স্বামী মানসিক রোগী তাই তাঁর সাথে সংসার করা সম্ভব নয় । অবশেষে পরিবারের সদস্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় রূপাকে। বৃহস্পতিবার তাকে বর্ধমান আদালতে তোলা হয় বলে জানা যায়।

Categories