Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

রাজ্যে অশান্তির পরিস্থিতি হলে আগেভাগে তা পর্যালোচনা করতে হবে, নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

কলকাতা হাইকোর্টে বিজেপি মহিলা লিগাল সেলের তরফে দায়েত করা হয় মামলা। হাওড়া অশান্তি নিয়ে শুনানি চলে। সাধারণ মানুষ জানিয়েছেন যে তাদের অনেক কিছুই নষ্ট হয়েছে। এদিনের শুনানিতে উঠে আসে ক্ষতিপূরণের দিকটাও। উল্লেখ্য নুপুর শর্মার বক্তব্য নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি মামলার নির্দেশ৷ দেন। বাস্তব পরিস্থিতির পর্যালোচনা করে অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটে যাওয়ার আগে রাজ্যকে উপযুক্ত ব্যাবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হল।

বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তাদের উকিল বলেছেন হাওড়া অশান্তি নিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী নামানো হোক। সেই বক্তব্যকেই মান্যতা দিলেন চিফ জাস্টিস৷ কোথাও কিছু ঘটনা ঘটছে কি না এটা সরকারকে আগে থেকে পর্যবেক্ষণ কর‍তে হবে। যাতে কারোর সম্পত্তি নষ্ট না হয় সেদিকে নিশ্চিত করতে হবে।

রিপোর্টে দেখা গেছে যে অনেক সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে। এডভোকেট জানাচ্ছেন তিনি নিজে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় গিয়ে দেখেছেন অনেক সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে। অনেক মানুষও এমন কথা জানিয়েছেন। বহু মানুষ জীবন সংশয়ে ভুগছেন।

ক্ষতিপূরণের বিষয় বিচারপতি রাজ্য সরকারের কাছে জানতে চাইলে রাজ্য সরকার তার আইনি ব্যাখ্যা দিয়েছে। বিবাদী পক্ষ থেকেও তার আইনি প্রত্যুত্তর দেওয়া হবে। তবে একথা সরকারের পক্ষ থেকে স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে সাধারণ মানুষের সম্পত্তি বিনষ্ট হয়েছে।

উল্লেখ্য হাওড়া অশান্তি মামলায় কতগুলি এফআইআর হয়েছে, কতজন গ্রেফতার হয়েছে তার পরিসংখ্যান জানিয়ে বুধবার আদালতে রিপোর্ট পেশ করেছে রাজ্য। এদিন মামলার শুনানির সময় প্রধান বিচারপতি মামলাকারীদের কাছে আবেদন করেন রাজ্যে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য। পাশাপাশি কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে সেটা রাজ্যের দেখা কর্তব্য বলেও মন্তব্য করেন বিচারপতি।

আদালতে মামলাকারীদের বক্তব্য, যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের অনেকেই এই অশান্তির ঘটনায় যুক্ত ছিল না বলে আমাদের ধারণা। প্রতিবাদের নামে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি কেন হবে? তা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়। মামলাকারী বলেন, নাগরিকদের নিরাপত্তা রাজ্যের দায়িত্ব। রাজ্য অশান্তি করার সুযোগ করে দিয়েছে। এই ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত বলেও দাবি করেন মামলাকারীরা। পাশাপাশি অবিলম্বে সেনা নামানো উচিত বলে সওয়াল করেন মামলাকারীরা।

উল্লেখ্য মহম্মদকে নিয়ে বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের পর দেশজুড়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদে নামেন বহু মানুষ। রাজ্যেও সেই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। হাওড়া-সহ বেশকিছু জায়গায় সেই বিক্ষোভ ঘিরে অশান্তির ঘটনা ঘটে। তা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয় জনস্বার্থ মামলা। বুধবার সেই মামলার শুনানি ছিল। এদিন শুনানি শেষ হলেও রায়দান স্থগিত রেখেছেন বিচারপতি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories