Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Dilip Ghosh: ‘শরদ পাওয়ার রাষ্ট্রপতি হলে টেরোরিজম বাড়বে’, বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে বর্তমানে সরগরম রাজনীতি। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বর্তমানে দিল্লিতে। একাধিক দলের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। যদিও বুধবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে বিজেপি বিরোধী দলগুলির স্ট্র্যাটেজি বৈঠকে কোন নির্দিষ্ট নাম ঘোষিত হয়নি। তারই মধ্যে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার টুইট করে জানান যে, রাষ্ট্রপতি পদের লড়াই থেকে তিনি সরে দাঁড়িয়েছেন । কারণ বিরোধী মুখ হতে রাজি নন তিনি। যদিও দিল্লির বৈঠকে তাঁর নাম প্রস্তাবিত হয় কিন্তু তিনি সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন।

এই প্রসঙ্গে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলেন, “একসময় শরদ পাওয়ারের সঙ্গে টেরোরিস্টদের যোগাযোগ ছিল। বোম্বের দাঙ্গা ইত্যাদির সময় তাঁর যে ভূমিকা তা সন্দেহের উপরে নয়। এরকম একজন ব্যক্তিত্ব যদি দেশের রাষ্ট্রপতি হন তাহলে আবারও দেশে টেরোরিজম বাড়বে”। একইসঙ্গে তিনি বলেন, বিরোধী মুখ হতে কেউ রাজি নন। কারণ কেউ ‘মুরগি’ হতে চাইবেন না । আর তার উপরে শরদ পাওয়ারের যে বয়স তাতে তিনি রাজি হচ্ছেন না।

এই বিষয়েও তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বলেন, “ দিদি ভাবছেন সবাই যদি ওনাকে একবার বলেন তাহলে উনি রাজি হয়ে যাবেন । কিন্তু ওনার নাম কেউ বলছে না”। এছাড়াও ওই বৈঠকে যে দলগুলি যোগদান করেছিল তাদের অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা যায় দিলীপ ঘোষকে। একই সঙ্গে তিনি বলেন , মমতা ব্যানার্জি অল ইন্ডিয়া লিডার হওয়ার দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করছেন কিন্তু পারছেন না। এটাই বোধহয় শেষ সুযোগ ওনার কাছে।

গতকাল ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক সওকত মোল্লা সিবিআই এর মুখোমুখি হন । দীর্ঘক্ষন জেরা করা হয় তাকে কয়লা পাচার মামলায়। তবে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তিনি সিবিআই দফতর থেকে বেরিয়ে এসে জানান, এই সবকিছুই বিজেপির চক্রান্ত। এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, রাজ্য যেখানে যত দাগী লোক ছিল এখন সবাই তৃণমূলে ।তাঁরাই সরকার চালাচ্ছেন। কাজেই বর্তমানে শাসক দলের অবস্থান নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন তিনি।

এদিন তাকে বিরোধী ঐক্য নিয়ে কটাক্ষ করতে শোনা যায়। তাঁর দাবি , ২০১৯ এর নির্বাচনের আগেও বিরাট মিছিল হয়েছিল, বহু দলের নেতারা এসেছিলেন । কিন্তু বর্তমানে তাদের কোনো খোঁজ পাওয়া যায় না বলেই জানালেন তিনি । এছাড়াও বিশ্বস্ত কোনো নেতা নেই বলেও কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ। বর্তমানে রাজ্যে বারবার শাসকদলের তরফ থেকে অভিযোগ উঠছে কেন্দ্র সরকার ১০০ দিনের কাজ প্রকল্পের টাকা বন্ধ করে রেখেছে। এই প্রকল্পের টাকা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে রাজ্যকে । সেই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ জানান, ৬ মাস ধরে এই প্রকল্পের টাকা দেওয়া হয়নি । কিন্তু তার আগে তিনবছর ধরে ওই প্রকল্পের টাকা দেওয়া হয়েছে। সেই হিসেবে এখনও পর্যন্ত মেলেনি । কাজেই যতদিন না সেই হিসেবে পাওয়া যাবে ততদিন নতুন করে কেন্দ্রের তরফ থেকে এই প্রকল্পের কোন টাকা আসবে না বলেই জানালেন তিনি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories