Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘বুলডোজার দিয়ে তৃণমূল নেতাদের বাড়ি ভাঙা হবে’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য ‘সেন্সরড’ দিলীপের

।।প্রথম কলকাতা।।

জে পি নাড্ডা নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রকাশ্যে কোন মন্তব্য করতে পারবেন না দিলীপ ঘোষ। কিন্তু তাতে কী! দিলীপ আছেন দিলীপেই। তিনি দিব্যি একের পর এক মন্তব্য করেই চলেছেন যা নিয়ে তৈরি হচ্ছে বিতর্ক। এবার বুলডোজার দিয়ে তৃণমূল নেতাদের বাড়ি ভাঙার হুমকি দিয়ে ফের বিতর্কে দিলীপ ঘোষ।

আজ বুধবার মেদিনীপুরে বিজেপির কার্যকারিণী সভায় যোগ দিয়েছিলেন দিলীপ যেখানে রাজ্য সরকারকে একের পর এক তোগ দাগেন তিনি। দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের ফলে সর্বত্র উঠেছে সমালোচনার ঝড়। এই বিতর্কিত মন্তব্যের ফলে অস্বস্তিতে পড়েছে গেরুয়া শিবিরও।উল্লেখ্য এই কারণেই দল তাকে সেন্সর করেছিল কারণ লাগাতার তিনি এমন মন্তব্য করছিলেন যা এই মুহুর্তে রাজ্য রাজনীতির ক্ষেত্রে বেকায়দায় ফেলছিল গেরুয়া শিবিরকে। এদিন ফের সেই ঘটনারই প্রত্যাবর্তন।

এদিন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি বলেন, “বাংলার মানুষর এখন চাইছেন বুলডোজার । যেভাবে রাজ্যে ক্রমাগত অবনতি হচ্ছে আইনশৃঙ্খলার এর হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার একটাই রাস্তা আর তা হল বুলডোজার। তৃণমূল নেতারা যারা এসব কথা বলছে, আগে তাদের বাড়ির উপর দিয়ে বুলডোজার চলবে।” যদিও প্রকাশ্যে এমন হুমকি দিয়েও কোন হেলদোল নেই তার। রাষ্ট্রপতি ভোটের জন্য দিল্লিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে আয়োজিত বিরোধীদের বৈঠক নিয়েও সরব হন বিজেপি নেতা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেন তিনি। ‘গাঁয়ে মানে না আপনি মোড়ল’।

এদিন দিলীপ প্রশ্ন তোলেন রাজ্যের শিক্ষাব্যবস্থা নিয়েও। স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় রাজ্যের পয়গম্বর বিতর্কে হাওড়ার অশান্তি প্রসঙ্গেও মুখ খুলেছেন দিলীপ ঘোষ। অশান্তি থামানোর চেষ্টা না করেই রাজ্য প্রশাসনিক কর্তাব্যক্তিরা নিজেদের আড়ালে রেখেছেন বলেও অভিযোগ তার। তিনি জানান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি মমতার সরকার উলটে তার মদতেই এমন ঘটনা ঘটছে রাজ্যে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories