Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মাসে কত টাকা বেতন পেলে আপনি গরিবের তালিকায় ? আসছে দারিদ্রতার নয়া সংজ্ঞা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

‘ গরিব ‘ শব্দটি রাস্তাঘাটে, যত্রতত্র শুনতে পাওয়া যায় । অর্থের অহঙ্কারে এই শব্দটা দিয়েই অনেকে মানুষের মূল্যবোধকেও অনায়াসেই বিচার করে ফেলেন। বর্তমান দিনে অনেকে আর্থিক দিক থেকে সচ্ছল থাকার সত্বেও নিজেকে গরিব বলে বারবার জাহির করেন। যাতে সাহায্যমূলক কাজকর্ম থেকে একটু দূরে থাকা যায়। কিন্তু এই দারিদ্রতাকে নির্দিষ্ট মানদণ্ডে বিচার করা হয় । এবার সেই বিষয়েই বিশ্ব ব্যাংকের থেকে নতুন সংজ্ঞা আসতে চলেছে। চলতি বছরের শেষেই হয়ত বিশ্ব ব্যাংক দারিদ্রতার নতুন সংজ্ঞা প্রকাশ করতে চলেছে। দরিদ্রসীমার নিচে তারাই থাকবে যাদের দৈনিক উপার্জন ১৬৭ টাকারও কম অর্থাৎ কোন ব্যক্তির বেতন মাসিক ৫ হাজার টাকার কম হলে তাকে দরিদ্রসীমার নিচে ধরা হবে।

সম্ভবত বিশ্ব ব্যাংক চলতি বছরের শেষের দিকে এক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে চলেছে। WorldBank.org তে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী বৈশ্বিক দারিদ্র্য সীমার মান চলতি বছরের শেষের দিকে পরিবর্তন করা হতে পারে। সেক্ষেত্রে বিচার করলে কোনো ব্যক্তির দৈনিক আয় যদি ২.১৫ ডলার কিংবা ১৬৭ টাকার কম হয় তাহলে তাকে দরিদ্র বলে মনে করা হবে। বর্তমানে যে ব্যক্তির দৈনিক আয় ১.৯০ ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৪৭ টাকা, তাকে দরিদ্র বলে মনে করা হয়। এটি মূলত করা হয়েছিল ২০১১ সালের মূল্যস্ফীতির দিকে বিশেষভাবে নজর রেখে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, ২০১১ সালে আন্তর্জাতিক মূল্যে আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য রেখা ঠিক করা হয়েছিল দৈনিক ১.৯০ ডলারের হিসেবে। কিন্তু মাঝে মাঝে মাঝে বিশ্ব ব্যাংক বিশ্ববাজার এবং মূল্যস্ফীতি অনুযায়ী সেই মানদণ্ড পরিবর্তন করতে পারে।

স্বাভাবিকভাবেই এক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠে আসছে তাহলে পুরোনো মান দণ্ডের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আসছে কেন ? এক্ষেত্রে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে , ২০১৭ সালের এর মূল্য ২.১৫ ডলার ২০১১ সালের ১.৯০ ডলারের সমান।

যদি দারিদ্রতার দিক থেকে ভারতের কথা বিচার করা যায় , তাহলে ভারতের প্রায় ২০.কোটির বেশি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করছেন । শুধু তাই নয়, তাদের জীবন অতিবাহিত করা একেবারেই সহজ নয়। রাজ্যের নিরিখে বিচার করলে ছোট ছোট রাজ্যগুলির পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ। ২০১১ থেকে ২০১২ সালের রিপোর্ট অনুযায়ী , মোট দরিদ্রের বেশিরভাগটাই বসবাস করেন গ্রামাঞ্চলে। শহরাঞ্চলে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা প্রায় ৫ কোটি। বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী , যদি দারিদ্র্যের সংজ্ঞা বদলে যায় তাহলে বিশ্বব্যাপী আর্থিক মানদণ্ড পরিবর্তন হবে। পাশাপাশি দরিদ্রের সংখ্যাও বহুগুণে বেড়ে যাবে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories