Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বড় খবর : দিল্লির মন্ত্রীর বাড়ি ও অফিসে ED-র জোর তল্লাশি, আশঙ্কা বাড়ছে কেজরিওয়ালের !

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

দিল্লি স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনকে গত ৩০ সে মে গ্রেফতার করেছে ইডি। তাঁর বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। আগামী ৯ ই জুন পর্যন্ত তিনি ইডির হেফাজতেই থাকবেন। এই পরিস্থিতিতে তাঁর বাড়ি, অফিস সহ একাধিক জায়গায় শুরু হলো জোর তল্লাশি। আজ সকাল থেকেই তল্লাশি শুরু হয়েছে। এই ঘটনা অস্বস্তি বাড়িয়ে দিচ্ছে আম আদমি পার্টির। কারণ অরবিন্দ কেজরিওয়াল ইতিপূর্বেই জানিয়েছেন, সত্যেন্দ্র জৈনের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ মিথ্যে। তিনি একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান মানুষ। পরিকল্পনা করে তাঁকে ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ইডি সূত্রের দাবি, আর্থিক দুর্নীতির মামলা ফলোআপ করানোর জন্যই এই তল্লাশি চলছে। তবে, আপের দাবি, তাঁকে যাতে বেশিদিন ধরে আটকে রাখা যায়, সেজন্যই নতুন করে অভিযান চালানো হচ্ছে। কারণ আগের অভিযানে অভিযোগ প্রমাণের মত কিছু পাওয়া যায়নি। গত এপ্রিল মাসে সত্যেন্দ্র জৈনের ৪.৮১ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। তাঁকে গ্রেফতার করা হয় ৩০ সে মে। ইডি সূত্রের খবর, তিনি যে সংস্থাগুলির শেয়ারহোল্ডার, সেখান থেকে পাওয়া বিপুল অর্থের সূত্র তিনি জানাতে পারেন নি। ২০১৫-১৬ সালের মধ্যে তাঁর কাছে ৪.৮১ কোটি টাকা এসেছিল। যে অর্থ ব্যবহার করে দিল্লি ও দিল্লির আশেপাশে বহু জমি কিনেছেন তিনি।

তবে,দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দাবি, সত্যেন্দ্র জৈন একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান মানুষ। পরিকল্পনা করে থাকে ফাঁসিয়েছে ইডি। সেকারণেই মন্ত্রিসভা থেকে এখনো তাঁকে অপসারণ করেনি আপ সরকার। তাঁর দপ্তরের দায়িত্ব নিয়েছেন দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মণীশ শিসোদিয়া। অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আশঙ্কা, দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ শিসোদিয়াকেও চক্রান্ত করে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে। খুব শীঘ্রই গ্রেফতার হতে পারেন তিনি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories