Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিবাহিতর আগে ‘অ’ লিখে স্কুলে জমা কন্যাশ্রী ফর্ম! প্রতিবাদ করতেই হুমকি পঞ্চায়েত সদস্যকে

।। প্রথম কলকাতা।।

রাজ্যে কন্যা সন্তানদের পড়াশোনার সুবিধার জন্য কন্যাশ্রী প্রকল্প চালু করেছে রাজ্য সরকার । কিন্তু বিবাহিত হওয়ার পরেও নিজেকে অবিবাহিত বলে দাবি করে স্কুলে কন্যাশ্রী ফর্ম জমা দেওয়ায় বেশ উত্তেজনা ছড়াল উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটায়। কন্যাশ্রী ফর্ম জমা দেওয়ার জন্য ঠিকানার শংসাপত্রে পঞ্চায়েত সদস্য বিবাহিত লিখলে তার আগে ‘অ’ যোগ করে স্কুলে সেই সার্টিফিকেট জমা দেওয়া হয় অবিবাহিত হিসেবে। এই ঘটনার কথা পঞ্চায়েত সদস্য প্রকাশ্যে আনলে তাকে এবং তাঁর স্বামীকে ফোন করে হুমকি দেয় অভিযুক্তের স্বামী।

জানা যায় ,গাইঘাটা থানা এলাকার ডুমো গ্রাম পঞ্চায়েতের দীঘা সুকান্ত পল্লী এলাকার এক বাসিন্দা গৌরাঙ্গ দাসের স্ত্রী সুমনা রায়। কন্যাশ্রী ফর্ম জমা দেবার জন্য পঞ্চায়েতের সদস্য শ্যামলী বালা পাইকের কাছে আসেন । কিন্তু সেই শংসাপত্রে সুমনা তাকে অবিবাহিত উল্লেখ করতে বলেন। তবে ওই পঞ্চায়েত সদস্য শ্যামলীদেবী তাঁর আবেদন রাখেননি । তিনি শংসাপত্রে সুমনাকে বিবাহিত হিসেবে উল্লেখ করেন। কিন্তু সুমনা স্কুলে সেই শংসাপত্র জমা দেবার আগে সেখানে বিবাহিতের আগে ‘অ’ যোগ করে সেটাকে অবিবাহিত করে নেয়।

স্কুলে তা জমা দেবার পরে স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে ওই পঞ্চায়েত সদস্যের কাছে ফোন আসে। কিন্তু তিনি তখন স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে তিনি শংসাপত্রে বিবাহিতই লিখেছিলেন । আর এই ঘটনার পর থেকেই শ্যামলীদেবী এবং তাঁর স্বামীকে ফোন করে হুমকি দেয় সুমনার পরিবার। এমনকি সুমনার স্বামী মধ্যরাতে ওই পঞ্চায়েত সদস্যর বাড়ির দরজা ভাঙচুর করার চেষ্টা চালায় বলেও তিনি অভিযোগ করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তাঁরা অভিযোগ জানানো হয় গাইঘাটা থানায়।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories