Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘সরকার ভালো কাজ করছে ‘, ব্যক্তি বিশেষের জন্য সরকারকে দায়ী করতে নারাজ কুণাল!

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় সিঙ্গেল বেঞ্চের রায়কেই বহাল রেখেছে ডিভিশন বেঞ্চ। রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে আজ সন্ধে ছ’টার মধ্যে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এমনকি সিবিআই দপ্তরে তিনি না পৌঁছলে, তাঁকে হেফাজতে নিতে পারবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা, এই ধরনের নির্দেশ পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে। এবার এ প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখলেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। তিনি জানান, আইন আইনের পথে চলবে, সরকারকে দায়ী করা ঠিক হবে না।

তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ(Kunal Ghosh) জানালেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গ সরকার অত্যন্ত ভালো কাজ করছে। সমাজের সমস্ত শ্রেনীর মানুষের কাছে উন্নয়ন, পরিষেবা, জনকল্যাণমূলক কাজ সঠিকভাবে পৌঁছাচ্ছে। ত্রিপুরাতে বাম জমানায় শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির জন্য ১০৩২৩ জন শিক্ষকের চাকরি চলে গেছে। তাদের সম্পূর্ণ বিভ্রান্ত করে বামফ্রন্ট সরকার যেমন ডুবিয়েছে, বিজেপি সরকারও তাদের কর্মচ্যুত করেছে। অন্যান্য দুর্নীতি যদি দেখেন মধ্যপ্রদেশের ব্যাপম কেলেঙ্কারি থেকে শুরু করে ভয়ঙ্কর সমস্ত ঘটনা ঘটেছে চারদিকে। আমি নিশ্চিতভাবে জাস্টিফাই করার কোনো চেষ্টা করছি না।”

“যেহেতু বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। তাই বিস্তারিত কোনো বক্তব্য আমরা এই মুহূর্তে রাখছি না। পাশাপাশি এটা বলব, এত ভালো কাজ হচ্ছে। সব দিক থেকে পশ্চিমবঙ্গের মানুষ উপকার পাচ্ছেন। সেখানে যদি .০১ শতাংশ, কোন ব্যক্তি, কেউ বা কারা, তাদের কোন কাজে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের ক্ষতি হয়ে থাকে, সাধারণ মানুষের ক্ষতি হয়ে থাকে। তাহলে নিশ্চিত ভাবে আইন আইনের পথে চলবে। দল ও সরকারকে সবাই মিলে দায়ী করা ঠিক হবে না।”

তিনি আরও জানান, “মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেছেন, এই ভুল বা অন্যায় খুব কম। .০১ শতাংশ যদি হয় তাহলে তিনি তাদের ভালবাসতে পারেন না। তাই আইন আইনের পথে চলবে। যেহেতু এটি প্রশাসনিক বিষয়। প্রশাসন, রাজ্য সরকারের তরফ থেকে যে আইনজীবীরা রয়েছেন, তাঁরা যে আইনি পদক্ষেপ করছেন, তা নিশ্চিতভাবে চলবে। এত ভালো কাজ হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে। সব বয়সের মানুষ সরকারের কাছে উপকার পাচ্ছেন। সেখানে যদি কোথাও কোন জায়গায় মুষ্টিমেয় কয়েকজনের কোন অন্যায় কাজে ছাত্রছাত্রী, কিছু মানুষ অসুবিধায় পড়ে, নিশ্চিত ভাবে সেই ভুল কাজকে সমর্থন করবে না দল।”

“তদন্ত চলবে, মহামান্য আদালতের সঙ্গে কোন তর্কে যাবার প্রশ্ন ওঠে না। শুধু বলব আদালতের পূর্ণ এক্তিয়ার আছে, যদি কোথাও কোন ভুল থেকে থাকে, যদি কোন ব্যক্তি কোন ভুল কাজ করে থাকে, সেটি নিশ্চিত ভাবে পয়েন্ট আউট করতেই পারেন। তার জন্য যা যা করা দরকার আদালত করবেন। তবে, কে সরকারের দায়িত্বে থাকবেন? আদালতের এই জায়গাটা মুখ্যমন্ত্রীর ওপর ছেড়ে দেওয়াটাই ভালো। আদালত যদি বলে দিতে শুরু করে, একে রাখা যাবে, ওকে সরানো যাবে। রাজ্য সরকারের প্রধান এটা সম্পূর্ণভাবে তাঁর উপরই ছেড়ে দেওয়াটা ভালো। সবটাই মুখ্যমন্ত্রী নিশ্চিত ভাবে দেখছেন।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories