Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত এত পরিকল্পনা কোথাও হয়নি’, প্রকল্পের খতিয়ান মমতার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জেলা সফর শুরু করেছেন। তাঁর তিন দিনের সফরের আজ দ্বিতীয় দিন। বুধবার তিনি পশ্চিম মেদিনীপুরে একটি কর্মী সভায় যোগদান করেন। সেই কর্মী সভায় তিনি মেদিনীপুরকে নতুন করে সাজানোর আশ্বাস দেন। পাশাপাশি এদিন রাজ্যে সম্প্রতি যে সকল প্রকল্প গুলি চলছে সেই প্রকল্পের সুবিধা নিয়ে বক্তব্য রাখেন। রাজ্যের মানুষের সহায়তা করার জন্য, তাদের পরিস্থিতিতে বদল আনার জন্য রাজ্য সরকারের উদ্যোগে বেশ কিছু প্রকল্প বর্তমানে চালু করা হয়েছে । আর সেই প্রকল্পের সুবিধা ভোগ করছেন রাজ্যের সাধারণ মানুষ।

মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, বেলপাহাড়ির বিভিন্ন গ্রামে মানুষের আর্থিক অবস্থা এতটাই খারাপ ছিল যে তাদের ঠিক মতো খাবার জুটত না। সেই জায়গায় বর্তমানে একটা মানুষের জন্ম থেকে শুরু করে তাঁর মৃত্যুর পর পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আজকের দিনে দাঁড়িয়ে বিনা পয়সায় মানুষের জন্য চালের ব্যবস্থা করা হয়েছে যাতে না খেয়ে অন্তত মরতে না হয় মানুষকে । স্বাস্থ্যসাথী মাধ্যমে বিনা পয়সায় চিকিৎসা, কন্যা সন্তান যারা সরকারি স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া তাদের জন্য কন্যাশ্রী প্রকল্প, সবুজ সাথী প্রকল্পে বিনা পয়সায় পড়ুয়াদের জন্য সাইকেল, দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়াদের পড়াশোনার সুবিধার জন্য স্মার্ট ফোন।

এছাড়াও, লক্ষ্মী ভান্ডার এবং রূপশ্রী সহ আরও একাধিক প্রকল্প রয়েছে যেখানে বিবাহিত মহিলা থেকে শুরু করে সকলেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুবিধা উপভোগ করছেন। একটা শিশু জন্ম নেবার পরেই একটি করে গাছ লাগানোর উদ্যোগ এমনকি মৃত্যুর পরের কোন ব্যক্তির শেষকৃত্যের কাজ যাতে না আটকায় সেক্ষেত্রেও প্রয়োজনে তাদের হাতে ২ হাজার টাকা করে তুলে দেওয়া হয় রাজ্য সরকারের তরফ। মুখ্যমন্ত্রী এদিন জানান, এবার বিধবা ভাতার ক্ষেত্রে অল্প বয়সে যদি কেউ দুর্ভাগ্যক্রমে বিধবা হন তাহলে তা্ঁরও পেনশনের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে।তিনি বলেন, ” জন্ম থেকে মৃত্যু অবধি এত পরিকল্পনা কোথাও করা হয়নি। জেনে রাখবেন, এইসব পরিকল্পনা চলবে”।

এদিন তিনি আরও বলেন যে, এখনও পর্যন্ত এই প্রকল্প গুলির সুবিধা যারা পাচ্ছেন না তাদের জন্য ফের একবার ২১ মে থেকে ৩১ শে মে পর্যন্ত দুয়ারে সরকার চালু করা হচ্ছে। সেখানে গিয়ে তাঁরা আবেদন জানাতে পারেন নির্দিষ্ট প্রকল্পের জন্য। দুয়ারের সরকারের সাথে সাথে এদিন তিনি পাড়ায়-পাড়ায় সমাধান প্রকল্প নিয়েও কথা বলেন। তিনি জানান, যে কোনো ছোটখাটো এলাকার সমস্যা , যা সমাধান হওয়া প্রয়োজন তার জন্য পাড়ায়-পাড়ায় সমাধান প্রকল্পের সূচনা করা হয়েছে। অন্যান্য রাজ্যের পাশাপাশি মেদিনীপুরের মানুষের জন্যও এই সকল প্রকল্প গুলি। তাদেরকেও তিনি আবেদন জানাতে বলেন নির্দিষ্ট প্রকল্পের জন্যে।

এছাড়াও এদিন সভামঞ্চে থেকে তাকে ক্রমবর্ধমান মূল্যবৃদ্ধি ইস্যুতে সরব হতে শোনা যায়। এদিন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ান তিনি। বলেন, ” গ্যাসের দামের ঢেউ উঠেছে ঠিক সমুদ্রের ঢেউয়ের মতো। একটা করে ঢেউ আসছে আর দাম চড়চড় করে বেড়ে যাচ্ছে। লুট লুট লুট হচ্ছে ! কেন্দ্র মানুষের পকেট থেকে লুট করেই চলেছে”। তিনি এদিন পেট্রোল, ডিজেল, গ্যাস এবং ওষুধের মতন আরও অন্যান্য জিনিসের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে আক্রমণ করেন কেন্দ্র সরকারকে। তাঁর দাবি, এইগুলি থেকে কোটি কোটি টাকা কাটমানি খাচ্ছে কেন্দ্র। আর তার প্রতিবাদ করতে গেলেই রাজ্যে হিন্দু মুসলিমের দাঙ্গা বাঁধিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories