Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

শ্রীলঙ্কায় সংবিধান সংশোধন নিয়ে জোর জল্পনা ! চলে যেতে পারে রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা

।। প্রথম কলকাতা ।।

শ্রীলঙ্কার রাজনৈতিক পরিস্থিতি এখন চরমে । অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক পরিস্থিতি সামলাতে গিয়ে টালমাটাল অবস্থায় শ্রীলঙ্কার রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ। ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী পদে নিযুক্ত হয়েছেন রনিল বিক্রমাসিংহে। এখনো পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপাকসের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে বিক্ষোভ চলছে । মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টে রাষ্ট্রপতির বিরুদ্ধে বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব ভেস্তে যায়। অর্থাৎ রাষ্ট্রপতি পদে গোতাবায়া রাজাপাকসে থাকছেন। আপাতত এই দেশের সংবিধান সংশোধন নিয়ে চলছে জোর জল্পনা।

আসলে বহু বিরোধী দল এবং বিক্ষোভকারীরা শ্রীলঙ্কার এই বিপর্যয়ের পিছনে দায়ী করছে রাজাপাকসে পরিবারকে। এমত পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে সংবিধান সংশোধনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। অনুমান করা হচ্ছে , এক্ষেত্রে ২১তম সংশোধনীর মাধ্যমে ১৯তম সংশোধনীর বিষয়গুলি পুনরুদ্ধার করা যেতে পারে। যদি সংবিধান সংশোধন হয় তাহলে রাষ্ট্রপতির সব ক্ষমতা চলে যাবে মন্ত্রিসভা, প্রধানমন্ত্রী এবং সংসদের কাছে। স্বাভাবিক ভাবেই তখন রাষ্ট্রপতির স্বেচ্ছাচারিতার সম্পূর্ণভাবে বিলোপ ঘটবে।

শ্রীলঙ্কায় সংবিধান সংশোধন নিয়ে এর আগেও বেশ কয়েকবার জটিল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। ২০১৫ সালে শ্রীলঙ্কার সংবিধানে ১৯ তম সংশোধন করা হয়। ২০২০ সালে রাজাপাকসে পরিবার নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার সাথে ক্ষমতায় আসলে সংবিধানের ২০তম সংশোধন করে। ১৯তম সংশোধনীতে রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হয়েছিল, আর ২০তম সংশোধনীতে সেই ক্ষমতা পুনরায় রাষ্ট্রপতির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মাহিন্দা রাজাপাকসে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগের পর এবং সহিংসতার ঘটনার পর মঙ্গলবার প্রথম হাউস বৈঠক হয় । এই সহিংসতার কারণে নিহত হয়েছেন প্রায় ৯জন সংসদ সদস্য। এই বৈঠকে গোতাবায়া রাজাপাকসের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছিল, কিন্তু তা গ্রাহ্য হয়নি। পাশাপাশি ছিল ডেপুটি স্পিকার পদে প্রার্থীর নির্বাচন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories