Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ঝাড়গ্রামে দাপট জঙ্গল মাফিয়াদের, প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে শালকাঠ পাচার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বর্তমানে সবুজায়নের উপর জোর দিচ্ছে রাজ্য ।বেশি করে গাছ লাগানোর বার্তা দিচ্ছে রাজ্য সরকার। সর্বস্তরের মানুষকে আহ্বান জানানো হচ্ছে যাতে তাঁরা এই কাজে এগিয়ে আসেন, নিজেদের আগ্রহে গাছ লাগান । আর সেই মতো পরিস্থিতিতে রাজ্যেই একের পর এক বনাঞ্চলকে ধ্বংস করতে শুরু করেছে জঙ্গল মাফিয়ারা। তার মধ্যে একটি বড় উদাহরণ হল ঝাড়গ্রাম জেলার শিমলি জঙ্গল । সেখানে রাতের অন্ধকারে একের পর এক মূল্যবান শাল গাছ কেটে পাচার করে দেওয়া হচ্ছে । এমনটাই অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় বাসিন্দাদের তরফ থেকে।

রাতের অন্ধকারে শালগাছ জঙ্গল থেকে কাটা হচ্ছে এবং ট্রাকে করে তা অন্যত্র নিয়ে গিয়ে পাচার করা হচ্ছে। এইসব কাজ চলছে প্রশাসনের নাকের ডগা দিয়ে কিন্তু সেক্ষেত্রে প্রশাসন একেবারেই নির্বাক দর্শক । গ্রামবাসীদের দাবি ,অবশ্যই প্রশাসন সব দেখছে সব জানে। কিন্তু তারপরেও কোনরকম হেলদোল নেই বন বিভাগের। গ্রামবাসীদের দাবি , এই পাচারকারীদের সঙ্গে যোগসূত্র রয়েছে প্রশাসনের একশ্রেণীর আধিকারিকদের যার কারণে জঙ্গল মাফিয়াদের এই বাড়বাড়ন্ত। তাদেরকে কেউ বাধা দিচ্ছে না বরং তাদের কাজে সহযোগিতা করা হচ্ছে।

গ্রামবাসীরা জানান , তাদের চোখের সামনে দিনের-পর-দিন শিমলি জঙ্গল থেকে লাগাতার শাল গাছ কেটে ফেলা হচ্ছে ,পাচার করে দেওয়া হচ্ছে মূল্যবান কাঠগুলি। কিন্তু তাঁরা সবকিছু দেখেও কিছু করতে পারছেন না কারণ এক্ষেত্রে বনবিভাগ, বন সুরক্ষা কমিটির কোনো রকম তৎপরতা নেই। তাঁরা অসহায় ভাবে এই পাচার কার্য দেখা ছাড়া আর কিছুই করতে পারছেন না। এইভাবে যদি দিনের-পর-দিন জঙ্গল থেকে শাল গাছ কেটে নেওয়া হতে থাকে তাহলে জঙ্গল আগামী দিনে থাকবেই না । এমনটাও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন এলাকার বাসিন্দারা।

গ্রামের বাসিন্দারা আরও এক সমস্যার কথা জানিয়েছেন। এই জঙ্গল কেটে ফেলার ফলে জঙ্গলের মধ্যে থাকা হাতি থেকে শুরু করে বিভিন্ন পশুরা খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে বেরিয়ে যাচ্ছে। তাদের আশ্রয় এই জঙ্গলকে নষ্ট করে দেওয়া হচ্ছে । বনদপ্তর এর কাছে তাঁরা এ বিষয়ে আবেদন জানিয়েছেন কিন্তু এখনও পর্যন্ত বনদপ্তর এর তরফ থেকে এই বিষয়ে কোন রকম পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories